বৃহস্পতিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:১৩ অপরাহ্ন

ড্র করেও ইতালিয়ান কাপের ফাইনালে জুভেন্টাস

নিউজ ডেস্ক :: ইন্টার মিলানের সঙ্গে সেমিফাইনালের দ্বিতীয় লেগে গোলশূন্য ড্র করেও ইতালিয়ান কাপের ফাইনালে উঠলো জুভেন্টাস। প্রথম লেগে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর জোড়া গোলে ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল তারা। এই অগ্রগামিতায় ফলে শিরোপার লড়াই নিশ্চিত হয় তুরিনের দলটির।

মঙ্গলবার (৯ ফেব্রুয়ারি) রাতে নিজেদের ঘরের মাঠে প্রতিপক্ষের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে জুভেন্টাস। অবশ্য রোনালদো সহজ কিছু সুযোগ নষ্ট করায় জয়ের দেখা পায়নি পিরলোর দল।

শুরু থেকে বল দখলে এগিয়ে ছিল জুভেন্টাস। কিন্তু প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের পরীক্ষা নিতে পারছিল না তারা। ২৫তম মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে রোমেলু লুকাকুর শট পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়।

এছাড়া প্রথমার্ধে দুটি সুযোগ পেয়েছিলেন রোনালদো। প্রথমবার ডি-বক্সে তার শট প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে ফেরে। পর্তুগিজ ফরোয়ার্ডের আরেকটি শট পা দিয়ে ঠেকান ইন্টার গোলরক্ষক সামির হান্দানোভিচ। ফলে গোলশূন্য থেকে বিরতিতে যায় উভয় দল।

দ্বিতীয়ার্ধে পাঁচ মিনিটের ব্যবধানে রোনালদোর আরও দুটি শট ফিরিয়ে জাল অক্ষত রাখেন ইন্টার গোলরক্ষক। এরপর ৭০তম মিনিটে আবারও হান্দানোভিচের পরীক্ষা নেয় জুভেন্টাস। এবারও তিনি সফল। রোনালদোর শক্তিশালী শট ফিরিয়ে দেন তিনি।

শেষ দিকে জুভেন্টাসের জালে বল পাঠাতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালায় ইন্টার। কিন্তু অভিজ্ঞ গোলকিপার জিয়ানলুইজি বুফন ও রক্ষণভাগ সব প্রচেষ্টা রুখে দেয়। বাকি সময়ে অনেক চেষ্টা করেও গোলের দেখা পায়নি কোন দলই।

ফাইনালে জুভেন্টাসের প্রতিপক্ষ কে হবে তা আজ বুধবার জানা যাবে। নাপোলি ও আতালান্টার মধ্যে জয়ী দলের বিপক্ষে ফাইনালে খেলবে আন্দ্রেয়া পিরলোর দল।

ম্যাচ শেষে কোচ পিরলো বলেছেন, ‘ইন্টারের মতো দারুণ একটা দলের বিপক্ষে আমরা এটার দাবি রাখি। এ ধরনের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচগুলোতে আমাদের দলের ভুল করা বেমানান। তারা দারুণ খেলেছে। কৌশলে আমরা কিছু বদল এনেছিলাম। আমাদের কয়েকটি পরিষ্কার সুযোগ এসেছিল।’

উল্লেখ্য, গত আসরের ফাইনালে টাইব্রেকারে জুভেন্টাসকে হারিয়ে দিয়েছিল নাপোলি।
এএইচ/ এসএ/

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি