শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১১:৪৫ পূর্বাহ্ন

মুন্সীগঞ্জের শিলই’য়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসকের নদী ভাঙন পরিদর্শন

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি :: মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার শিলই ইউনিয়নে নদীর ভাঙন পরিদর্শন করলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) স্নেহাশিস দাশ।

বুধবার ১৪ জুলাই বেলা ১১টায় শিলই গ্রামে পদ্মার শাখা নদীর ভাঙন রোধে পরিদর্শন করা হয়।পদ্মার শাখার নদীর পানি বৃদ্ধি হওয়ার কারনে বিগত ১০দিন যাবৎ শিলই গ্রামের চর শিলইয়ে অতিরিক্ত মাত্রায় ভাঙন দেখা দেয়। এতে করে কৃষকের ৩ফসলি জমিসহ বসতভিটা নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।এ পর্যন্ত কৃষকের প্রায় ২০ একর জমি নদী গর্ভে চলে গেছে।এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে উদ্বেগ বিরাজ করছে।নদী ভাঙন পরিদর্শন শেষে জেলা প্রশাসনের পক্ষ্য থেকে নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়া ২৫টি পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান,উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা, কামরুল হাসান মারুফ।শিলই ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম লিটন এবং ইউপি সদস্যবৃন্দসহ এলাকাবাসী। এবিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) স্নেহাশিস দাশ বলেন,পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে দ্রুত নদী ভাঙন রোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হামিদুর রহমান জানান,জেলা প্রশাসনের পক্ষ্য থেকে আমরা শিলই গ্রামের চর শিলইয়ে নদী ভাঙন পরিদর্শন করা হয়েছে। ভাঙন রোধে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে আলোচনা করে দ্রুত ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে।এছাড়া নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকের মাঝে জেলা প্রশাসনের পক্ষ্য থেকে খাদ্য সহায়তা দেয়া হয়েছে।

শিলই ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হাসেম লিটন জানান, পদ্মার শাখা নদীতে পানি বৃদ্ধি হওয়ার সাথে সাথে চর শিলইয়ে অতিরিক্ত মাত্রায় নদী ভাঙন দেখা দিয়েছে। বিগত ১০দিনের ভাঙনে কৃষকের প্রায় ২০ একর ৩ফসলি জমি নদী গর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।এবিষয়ে জেলা প্রশাসক মহোদয় কে অবগত করা হলে ওনারা এসে পরিদর্শন করেন।আশা রাখি ওনারা পানি উন্নয়ন বোর্ডের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে খুব দ্রুত নদী ভাঙন রোধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি