বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন

এগুলো তারাই বলে যাদের মনের ভেতর হিংসায় ভরা : সাকিব

নিউজ ডেস্ক :: জিম্বাবুয়ে ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টানা সিরিজের পর যুক্তরাষ্ট্রে থাকা পরিবারের কাছে অবস্থান করছেন সাকিব আল হাসান। দুই দিন পরই ঢাকায় পা রাখতে চলেছে নিউজিল্যান্ড। সেপ্টেম্বরের প্রথম দিন থেকে শুরু হচ্ছে পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। দেশে ফেরার আগে একটি জাতীয় দৈনিকের সঙ্গে কথা বলেছেন সাকিব আল হাসান।

ঘরের মাঠে অজিদের নাকানি-চুবানি খাইয়েছে টাইগাররা। পাঁচ ম্যাচ সিরিজে ৪-১ ব্যবধানে জয় পেয়েছে লাল-সবুজরা। পুরো টুর্নামেন্টে স্বাগতিকদের বোলিংয় আক্রমণের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি সফরকারী ব্যাটসম্যানরা। শেষ ম্যাচে মাত্র ৬২ রানের গুটিয়ে যায় ম্যাথু ওয়েড-মিচেল মার্শরা।

বাংলাদেশের এমন অর্জনেও নানা আলোচনা-সমালোচনা। ঘরের মাঠের ফায়দা নেয়ার ফলেই কী এমন সাফল্য?

এমন প্রশ্নের জবাবে সাকিবের উত্তর, ‘এগুলো তারাই বলে যাদের মনের ভেতরটা শুধু হিংসায় ভরা। তারা বাংলাদেশের অর্জনকে ঈর্ষা করে। ঘরের মাঠে কে নিতে চাইবে না নিজেদের কন্ডিশনের সুবিধা? কোন দল নেয় না সেটা?’

জিম্বাবুয়ের মাটিতে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে জয় তোলার পর দ্বিতীয়টিতে হারতে হয়। তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে ১৯৪ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে খেই হারায় বাংলাদেশ। যদিও শেষ পর্যন্ত ম্যাচের পাশাপাশি সিরিজও নিজেদের করে টাইগাররা। অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ছোট ছোট সংগ্রহ দিয়েও ম্যাচ জিততে দেখা গেছে। এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচ জয়ের রেকর্ড খুব কমই আছে। সাকিবের কাছে জানতে চাওয়া হয়, সংক্ষিপ্ত সংস্করণের রসায়ন বুঝতে শুরু করেছে দল?

বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার বলেন, ‘জানি না কতটা ধরতে পারছি বা বুঝতে পারছি। তবে আগের চেয়ে যে মানসিকভাবে আমরা ভালো অবস্থানে আছি, সেটা গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি। টি-টোয়েন্টিতে আগে আমাদের মানসিকতাই থাকত যে এই খেলাটা আমরা অত ভালো খেলি না। এখন সে জায়গা থেকে অনেকটা সরে এসেছি। এখন সবাই জানে, এই সংস্করণেও ভালো করা আমাদের পক্ষে সম্ভব।’

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের স্কোয়াডে থাকা একজনকেও বাংলাদেশ সফরে পাঠাচ্ছে না নিউজিল্যান্ড। বিষয়টি নিয়ে সাকিবের ভাবনা কি?

৩৪ বছর বয়সী এই তারকা বলেন, ‘একটু হতাশাজনক তো বটেই। তবে এটাতে আমাদের কিছু করার নেই। এটা ওদের বোর্ডের ব্যাপার, ওদের খেলোয়াড়দের ব্যাপার। আমরা জানি, আমরা নিউজিল্যান্ডের সঙ্গেই খেলতে যাচ্ছি। ওদের বিপক্ষে যতটা ভালো খেলা যায় খেলব। দিন শেষে খেলা হচ্ছে নিউজিল্যান্ডের সঙ্গে বাংলাদেশের। কোনও খেলোয়াড়ের সঙ্গে খেলোয়াড়ের খেলা হচ্ছে না। রেকর্ডে এটা লেখা থাকবে না যে আমরা নিউজিল্যান্ডের এমন একটা দলকে হারিয়েছি, যেখানে বিশ্বকাপের একজন খেলোয়াড়ও ছিল না। এখানে দলটাই গুরুত্বপূর্ণ, খেলোয়াড় নয়। তা ছাড়া নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা কখনো টি-টোয়েন্টি জিতিনি। একটা বাড়তি অনুপ্রেরণাও তাই থাকবে।’

কুড়ি ওভারের বিশ্বকাপে লাল-সবুজদের লক্ষ্য কেমন হওয়া উচিত?

‘বিশ্বকাপ নিয়ে এখনও সেভাবে চিন্তা করিনি। আপাতত সব মনোযোগ নিউজিল্যান্ড সিরিজে। একটা একটা করে যাওয়াই ভালো। নিউজিল্যান্ড সিরিজটা যদি আমরা ভালোভাবে শেষ করতে পারি, সেটা বিশ্বকাপের প্রস্তুতিতে আমাদের অনেক এগিয়ে রাখবে।’ যোগ করেন সাকিব।

ওয়াই

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি