বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০২:৪৮ পূর্বাহ্ন

নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের পূর্বের কমিটি পুনর্বহালের দাবিতে সুবর্ণচরে সমাবেশ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :: নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের পূর্বের ঘোষিত কমিটি বাতিল করায় ক্ষুব্ধ নোয়াখালী জেলা আওয়ামীলীগের একাংশ। এ নিয়ে জেলা জুড়ে চলছে তোলপাড়। গতকাল ৩ গ্রুপের মুখোমুখি অবস্থানের ফলে নোয়াখালী জেলা শহরে ১৪৪ ধারা জারি করে জেলা প্রশাসন।

২০১৯ সালের ২০ নভেম্বরে নোয়াখালী জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলনের মাধ্যমে হওয়া পূর্ণাঙ্গ কমিটি বহাল রাখার দাবীতে নোয়াখালী সুবর্ণচর উপজেলায় প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সোমবার ১১ টায় সুবর্ণচর উপজেলার হারিছ চৌধুরী বাজারে উক্ত প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী অংঙ্গসংগঠন।

প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ্যাডভোকেট ওমর ফারুক, জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য এ্যাডভোকেট আবুল বাসার ডিপটি, উপজেলা আওয়ামীলীগের সংগঠনিক সম্পাদক ডাক্তার আব্দুল মান্নান, যুগ্ম—সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান দিপক, যুবলীগের আহবায়ক আমিনুল ইসলাম রাজিব, যুগ্ম—আহবায়ক আমিনুল ইসলাম রাজিব, ছাত্রলীগ আহবায়ক আব্দুল্যাহ আল মামুন জাবেদ, চরক্লার্ক ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ হানিফ ক্যাশিয়ার, চরজব্বার ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগ সভিপতি আজগর হোসেন পলোয়ানসহ উপজেলা, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

সুবর্ণচর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি এ্যাডভোকেট ওমর ফারুক বলেন, বিগত দিনে জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল করিম চৌধুরীর নেতৃত্বে দল সুসংগঠিত ছিলো,তিনি তাঁর নির্বাচনী এলাকার ব্যাপক উন্নয়ন করেছেন। এলাকা থেকে মাদক, সন্ত্রাস, জঙ্গীবাদ দূর করেছেন । করোনাকালে অবদান ছিলো দেশ জুড়ে প্রশংসিত। কিছু হাইব্রিড, দলের বিশৃঙ্খলাকারী পরিকল্পিতভাবে জেলা আওয়ামীলীগকে কুলষিত করতে একটি পক্ষ উঠে পড়ে লেগেছে। বিগতদিন গুলোতে একরামুল করিম চৌধুরী মোটরসাইকেল নিয়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলে মানুষের ধারে ধারে পৌঁছেছেন, নেতাকর্মীদের বিপদে আপদে পাশে ছিলেন। তার সকল অবদান ম্লান করতে একটি কুচক্রী মহল সক্রিয় ভূমিকা পালন করে সোস্যাল মিডিয়ায় অনবরত মিথ্যা তথ্য দিয়ে জেলা আওয়ামীলীগের মধ্যে দ্বন্দ্ব সৃষ্টি করছে।

২০১৯ সালের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে ঘোষিত জেলা আওয়ামী লীগের কমিটি পূর্ণবহাল রাখার জন্য দলের সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা, সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।

সমাবেশ সম্পর্কে জানতে চাইলে চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.জিয়াউল হক বলেন, বিনা অনুমতিতে সমাবেশ করতে চাইলে পুলিশ সমাবেশস্থলে গিয়ে ছত্রভঙ্গ করে দেন। বিশৃংখলা এড়াতে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও)চৈতী সর্ববিদ্যা বলেন, সভা সমাবেশের অনুমতি কাউকে দেয়া হয়নি।অনুমতি ছাড়া কোন ধরনের সভা সমাবেশ করতে দেয়া হবেনা।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি