শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন

রায়পুরে শ্বশুর বাড়িতে নির্যাতনের স্বীকার লাভলী আক্তার

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বামনী ইউনিয়নের মধ্যে সাগরদী গ্রামের মনার বাড়িতে লাভলি বেগম ২৫ কে পিটিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করার অভিযোগে হাফেজ সোলেমান ৭০, সালমা ৪০, মোঃআব্দুল কাদির ৩০,জান্নাত ২৫ কে অভিযুক্ত করে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

থানার অভিযোগ সূত্রে জানা যায় ঘটনার দিন ৮ই সেপ্টেম্বর বুধবার সকাল ৯.৩০ মিনিটে লাভলী বেগম তার ঘর থেকে পাশের বাড়ীতে যাওয়ার সময় পথিমধ্যে দেশীয় অস্ত্র, লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে মারাত্মক ভাবে আহত করে, তার শরীরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্মক ভাবে জখম হয়। তার সাথে থাকা মোবাইল, গলার সোনার এক ভরি ওজনের চেইন, হাতের আংটি ছিনিয়ে নিয়ে যায়। তার চিৎকারে স্হানীয় আলেয়া বেগম, আব্দুল মান্নান সহ লোকজন তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়,সেখানে তাঁকে চিকিৎসা সেবা দিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করান।

এই ব্যপারে হাফেজ সোলেমান সাহেবের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন লাভলী বেগম আমার ছেলের বউ এবং খারাপ চরিত্রের মহিলা, দীর্ঘ দিন আমার ছেলেকে আমাদের কাছ থেকে বিছিন্ন করে রেখেছে, কোনো যোগাযোগ করতে দিচ্ছে না, তাই একটু কথা কাটাকাটি হয়েছে। মোবাইল ফোনটি নেওয়ার কথা স্বীকার করলেও সোনার চেইন নেওয়ার কথা অস্বীকার করেন।

অভিযোগের ব্যপারে রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) বলেন অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে এস আই মোঃরিয়াজ কে পাঠিয়েছি লাভলী বেগমের মোবাইল ফোনটি উদ্ধার করে দিয়েছি, বিষয়টি যেহেতু পারিবারিক তাই প্রয়োজনীয় ব্যবস্হা নেওয়ার জন্য নির্দেশ দিয়েছি।

লাভলী বেগম বলেন আমি আইন অনুযায়ী দোষীদের বিচারের আওতায় এনে কঠিন শাস্তির দাবি করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি