বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০২:০২ পূর্বাহ্ন

শিবালয়ে উপকারভোগীদের মাঝে হাউজহোল্ড সাইলো বিতরণ করেন খাদ্যমন্ত্রী

মানিকগঞ্জ থেকে আকাশ চৌধুরী :: ১৯ অক্টোবর ২০২১ খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেছেন, সারাদেশে ২শ’টি পেডি সাইলো নির্মাণ করা হবে। ইতিমধ্যে একনেকে ৩০টি পেডি সাইলো নির্মাণের অনুমতি পাওয়া গেছে। এর একেকটি পেডি সাইলোর ধারণ ক্ষমতা হবে ৫হাজার মেট্রিক টন। কৃষকরা ভেজা ধান নিয়ে আসলে তা এক ঘন্টার মধ্যে শুকিয়ে সেই ধান আমরা ১৪ পারসেন্ট করে অটোমেটিক্যালি সাইলো দিয়ে তাকে পয়সা দিয়ে বিদায় করে দিতে পারবো। প্রাথমিক অবস্থায় যেখানে জমি অধিগ্রহণ করা হবে না সেখানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশে সম্পূর্ণ জিওজি অর্থাৎ বাংলাদেশ সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে ত্রিশটি পেডিক সাইলো নির্মিত হবে।

১৯ অক্টোবর ২০২১ ইং মানিকগঞ্জের শিবালয় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে খাদ্য অধিদপ্তরের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থানে বসবাসরত দরিদ্র, অনাগ্রসর, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এবং দুর্যোগপ্রবণ এলাকার জনগোষ্ঠীর নিরাপদ খাদ্য সংরক্ষণের জন্য হাউজহোল্ড সাইলো সরবরাহ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় উপকারভোগীদের মধ্যে হাউজহোল্ড সাইলো বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ এর সভাপতিত্ব করেন। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে দিকনির্দেশনা মূলক বক্তব্য রাখেন মানিকগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ এম নাঈমুর রহমান দুর্জয়, মানিকগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য মমতাজ বেগম, খাদ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব খুরশিদ ইকবাল রেজবী, মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার গোলাম আজাদ খান, শিবালয় উপজেলা চেয়ারম্যান ও শিবালয় উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউর রহমান খান জানু, শিবালয় উপজেলা নির্বাহী অফিসার জেসমিন সুলতানা এবং খাদ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক শেখ মজিবুর রহমান।

তিনি আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রায় আড়াই কোটি লোকের খাদ্যবান্ধব কর্মসূচী গ্রহণ করেছেন। আমরা এই খাদ্যবান্ধব কর্মসূচীর যে কার্ডগুলো আছে, এগুলো আমরা ছয় মাসের মধ্যে ডিজিটালাইজড করে ফেলবো। আইসিটি মন্ত্রণালয় এর সাথে আমাদের কথা হয়েছে। প্রতিটি কার্ড স্মার্ট কার্ড থাকবে, যার কার্ড সে ব্যাক্তি না নিয়ে গেলে চাল পাবেনা, শো করবে না। আমরা সেই লাইনে চলে যাচ্ছি। কারো কার্ড নিয়ে কেউ খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর চাউল তুলতে পারবে না।

সবশেষে উপকারভোগীদের মাঝে হাউজহোল্ড সাইলো বিতরণ করা হয়েছে। জেলার শিবালয়, হরিরামপুর ও দৌলতপুর দুর্যোগপ্রবণ তিনটি উপজেলায় ১৩ হাজার পিস পারিবারিক সাইলো বরাদ্দ করা হয়েছে। এর মধ্যে শিবালয় উপজেলায় ৫ হাজার, দৌলতপুরে ৪ হাজার এবং হরিরামপুরে ৪ হাজার পিস। পর্যায়ক্রমে এগুলো বিতরণ করা হবে। এ সকল পারিবারিক সাইলোতে ৪ কেজি ধান আথবা ৫৬ কেজি চাল অথবা ৭০লিটার পানি সংরক্ষণ করা যাবে।

উল্লেখ্য, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে এ প্রকল্পের আওতায় দেশের ৮টি বিভাগে ২ জেলার ৫৫টি উপজেলায় ৩লাখ পারিবারিক সাইলো বিতরণ করা হবে। এসময় উপস্থিত ছিলেন শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কুদ্দুস, শিবালয় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান একেএম মিরাজ হোসেন লালন ফকির, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রুনা আকতার, শিবালয় উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মোঃ অছিয়ার রহমান সিকো সহ শিবালয় উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মী বৃন্দ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি