শনিবার, ২৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৭:২০ অপরাহ্ন

চাটখিলে শশুরবাড়িতে জামাইকে হত্যার অভিযোগ

নোয়াখালী প্রতিনিধি :: চাটখিল উপজেলার পরকোর্ট ইউনিয়নের রামদামদেবপুর গ্রামে শনিবার বিকেলে শশুরবাড়িতে মেয়ের জামাইকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার গতকাল চাটখিল থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। নিহত জামাই সাইফুল ইসলাম শামীম লক্ষীপুরের রামগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ আলীপুর গ্রামের দেলোয়র হেসেনের ছেলে।

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, বিগত ৯ মাস পূর্বে দেলোয়ার হোসেন শামীমের সাথে চাটখিল উপজেলার রামদেবপুর শেখের বাড়ির মো. জয়নাল হোসেনের মেয়ে ঝুমুর আক্তারের সাথে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের পর নিহত শামীম জানতে পারে তার স্ত্রীর সাথে তাদের এলাকার এক ছেলের সাথে প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে এবং বিয়ের পরও সে সম্পর্ক চালিয়ে যাচ্ছে। ওই ছেলের সাথে গভীর রাত পর্যন্ত ফোনে কথা ও ম্যাসেজ আদান-প্রদানের বিষয়ে শামীম তাকে নিষেদ করলে সে বাবার বাড়িতে চলে যায়। দীর্ঘদিন বাবার বাড়ি থেকে না আসায় শামীম কয়েকবার স্ত্রীকে ফিরিয়ে আনতে চেষ্টা করে। গত শনিবার সকালে হঠাৎ তার স্ত্রী তাকে ফোন করে বলে সে একা শশুর বাড়িতে গিয়ে তাকে নিয়ে আসতে। স্ত্রীর কথামত সে দুপুরে শশুরবাড়িতে গেলে স্ত্রী ঝুমুর ও তার পরিবারের লোকজন মিলে তাকে বেদম মারধর করে হত্যা করে গোয়াল ঘরে ফেলে রাখে। পরে ওই বাড়ির লোকজনের মধ্যে ঘটনাটি জানাজানি হওয়ায় শশুর পরিবারে লোকজন দ্রæত চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এনে ফেলে যায়। পরে নিহতের পরিবার খবর পেয়ে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ছুটে আসে। নিহতের বাবা-মা জানায়, তাদের ছেলেকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। হাসপাতালে ছেলের শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের দাগ দেখতে পান বলেও তারা জানান।

চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমেপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার বলেন, শনিবার বিকেলে রামদেবপুর গ্রাম থেকে ২/৩ জন লোক মৃত অবস্থায়ই এক যুবককে নিয়ে এসে জরুরী বিভাগের সামনে রেখে যায়।
চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল খায়ের বলেন, নিহতের বাবা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। ময়না তদন্ত রিপোর্ট বের হলে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি