শনিবার, ২৫ Jun ২০২২, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন

বাজারি শোষণের বিরুদ্ধে আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান – ৯ সংগঠন

নিউজ ডেস্ক :: চাল,ডাল,আটা,ভোজ্য তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদে আজ ১৮ মে বিকেল ৫ টায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।৯ সংগঠনের সমন্বয়ক ও নয়াগণতান্ত্রিক গণমোর্চার সভাপতি জাফর হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের সাম্যবাদী আন্দোলনের সমন্বয়ক শুভ্রাংশু চক্রবর্তী, জাতীয় মুক্তি কাউন্সিল সম্পাদক ফয়জুল হাকিম, গণমুক্তি ইউনিয়ন আহবায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদ নাসু, জাতীয় গণতান্ত্রিক গণমঞ্চ সভাপতি মাসুদ খান ও বাসদ এর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মহিনউদ্দিন চৌধুরী লিটন।

সভাপতির বক্তব্যে জাফর হোসেন চাল ডাল ভোজ্য তেলসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি রোধে সরকারের কঠোর সমালোচনা করে বলেন, শেখ হাসিনার, সরকার ব্যবসায়ীদের সেবা করে চলেছে। এই ব্যবসায়ী শ্রেণীর সরকার হঠাতে দেশব্যাপী আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

শুভ্রাংশু চক্রবর্তী শ্রমজীবী জনগণকে সেনাবাহিনী-পুলিশ-বিজিবি সদস্যদের মতো পূর্ণ রেশন দেয়ার দাবী জানিয়ে বলেন,লুটেরা ব্যবসায়ী সামরিক- বেসামরিক আমলাদের সিন্ডিকেট ভেঙ্গে দিতে হবে।

ফয়জুল হাকিম বাজারি শোষণের বিরুদ্ধে ঘেরাও আন্দোলন গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে বলেন গণঅভ্যুত্থানের মাধ্যমে হাসিনা সরকারের পতন ঘটাতে হবে। দারিদ্র্য বাণিজ্যে নিয়োজিত গ্রামীণ ব্যাংকের ড মুহাম্মাদ ইউনুসকে প্রধানমন্ত্রী করে জাতীয় সরকার গঠনে ডা জাফরুল্লাহ চৌধুরীর প্রস্তাবের সমালোচনা করে তিনি বলেন,বাংলাদেশের আভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে সাম্রাজ্যবাদী হস্তক্ষেপ রুখে দাঁড়াতে হবে।

নাসির উদ্দিন আহমেদ নাসু প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্যে বলেন, দিনের ভোট রাতে করে ভোট ডাকাতি করে গদী দখলে রাখা আপনাদের অপরাধ। আপনাদের গদী ছাড়তে হবে। মাসুদ খান নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে সরকারের মন্ত্রীদের বক্তব্যকে জনগণের প্রতি উপহাস বলে কঠোর সমালোচনা করে বলেন, জনগণের শক্তি গঠন করে এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে হবে।

মহিনউদ্দিন চৌধুরী লিটন বলেন, জনগণের ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন ফ্যাসিবাদের পতন ঘটাবে সেদিন বেশী দূরে নয়। সমাবেশ শেষে মিছিল বিভিন্ন রাস্তা প্রদক্ষিণ করে পল্টন মোড়ে এসে শেষ হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি