সোমবার, ২৭ Jun ২০২২, ০২:৫২ পূর্বাহ্ন

মানিকগঞ্জে জমে উঠেছে লোকজ ও শিল্প পণ্য মেলা – ২০২২

মানিকগঞ্জ থেকে আকাশ চৌধুরী :: মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশের আয়োজনে মাসব্যাপী “লোকজ ও শিল্প পণ্য মেলা ২০২২” জমে উঠেছে। গত ৩১শে মে আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন হওয়া মেলায় প্রতিদিনই দর্শনার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হচ্ছে। প্রবেশ টিকেটে প্রতিদিন মোটরসাইকেল সহ আকর্ষণীয় বিভিন্ন পুরস্কার ঘোষণা করায় মানিকগঞ্জবাসীর কাছে মেলাটি ভিন্ন মাত্রার গুরুত্ব পেয়েছে। শনিবার (১৮ জুন) বিকেলে মেলা ঘুরে দেখা যায়, থেমে থেমে বৃষ্টি হলেও পরিবার-পরিজন নিয়ে অনেকেই এসেছেন মেলায় পছন্দের জিনিস কিনতে।

মেলায় প্লাস্টিক পণ্য, অ্যালুমিনিয়ামের গৃহস্থালি (ক্রোকারিজ), ইমিটেশনের গয়না, কসমেটিকসের স্টলগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় বেশি। উদ্বোধনের প্রথম দিন থেকেই ভাল বিক্রি হচ্ছে। আবার কাঠ ও প্লাইউডের আসবাব ও ইলেকট্রনিক পণ্যের স্টলগুলোও ছিল ক্রেতা-দর্শনার্থীদের আগ্রহের কেন্দ্র। মূল্যছাড়সহ বিভিন্ন সুবিধা দেওয়ায় ক্রেতারা আকৃষ্ট হচ্ছেন। এছাড়াও প্রতিদিনের প্রবেশ টিকেটের পুরস্কার হাজার হাজার দর্শনার্থীদের উপস্থিতিতে ইন্টারনেট ও ডিস লাইনে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে।

মেলা থেকে গৃহস্থালি পণ্য কিনছিলেন বান্দুটিয়া এলাকার জয়নব বেগম। তিনি বলেন, আজ দিয়ে দু’দিন মেলায় আসলাম। মেলায় কম মূল্যে ও ভাল মানের গৃহস্থালি পণ্য পাওয়া যায়।লোকজ ও শিল্প পণ্য মেলায় এবারে সবচেয়ে বেশি আর্কষণ হচ্ছে ইমিটেশনের গয়না, কসমেটিকস, শাড়ি, থ্রি-পিস ও জুতার স্টলগুলো। এই স্টলগুলোতে নারী ক্রেতাদের সংখ্যা বেশি। মেলায় এসেছে বাহারি রঙের বিভিন্ন দেশীয় শাড়ি, থ্রি-পীস, কসমেটিকস ও ইমিটেশনের গয়না। মেলায় ইমিটেশনের গয়না কিনছিলেন মমতা রায়। তিনি বলেন, বাণিজ্য মেলায় বিভিন্ন দেশের কসমেটিকস, ইমিটেশনের গয়না পাওয়া যায়। তা ব্যতিক্রম, দৃষ্টিনন্দন ও মানের দিক দিয়ে সেরা। তিনি বলেন, ইমিটেশনের গয়নাগুলো শাড়ি বা থ্রি-পীসের সাথে মানসই করে পড়লে অনেক বেশি ব্যক্তিত্ববান মনে হয়। মেলায় বাবা-মায়ের হাত ধরে এসেছেন অনেক শিশু। মেলায় শিশুদের জন্য থাকছে নজরকাড়া ডিজাইনেরা পোশাক, জুতা ও বিভিন্ন প্রকারের খেলনা।

৪ বছরের মেয়েকে নিয়ে নাগর দোলায় উঠেছিলেন গড়পাড়া এলাকার সুমাইয়া বেগম। তিনি বলেন, মানিকগঞ্জে বাচ্চাদের বিনোদনের তেমন কোনো জায়গা নেই। তাই মেলায় বাচ্চাদের ঘুরতে নিয়ে এসেছি। মেলায় শিশু পার্কের ব্যবস্থা রয়েছে। এই মেলায় শিশুদের বিনোদনের জন্য রেলগাড়ী, স্পীড বোর্ড, নাগরদোলা সহ বিভিন্ন রাইড রয়েছে।

মেলায় ইভেন ম্যানেজমেন্টের দায়িত্বরত কর্মকর্তা এম এ মঈন খান বাবলু জানান, করোনাকালিন সময়ের পর যথারীতি স্বাস্থ্যবিধি ও সর্বোপরি নিরাপত্তা গ্রহণ পূর্বক মেলাটি আমরা দর্শক দর্শনার্থী বৃদ্ধির লক্ষ্যে যথাযথ প্রচার প্রচারণার ব্যবস্থা, স্থায়ী বিদ্যুতের পাশাপাশি স্ট্যান্ডবাই জেনেরেটর, ক্লোজসার্কিট ক্যামেরা, পার্কিং ব্যবস্থা সহ মেলায় সর্বোপরি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। এছাড়াও মেলায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু কর্নার ও পুলিশ কর্নার স্থাপন করা হয়েছে।

স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের সপ্তাহে দুইদিন বিনামূল্যে প্রবেশ টিকেট ও রাইডসের প্রদর্শনী ফ্রীতে চালানোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। চলমান মেলায়, প্রতিদিন স্থানীয় শিল্পীদের অংশগ্রহনে আকর্ষণীয় সংস্কৃতি অনুষ্ঠানের পাশাপাশি, স্থানীয়ভাবে মানিকগঞ্জ জেলার দুঃস্থ মুক্তিযোদ্ধা, দৃষ্টি ও শারীরিক প্রতিবন্ধী, অসহায় দুঃস্থ মহিলা উদ্দোক্তাদের সম্মাননা প্রদানের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। পাশাপাশি বর্তমান গ্রীষ্মকালীন সময়ে মেলায় দর্শক দর্শনার্থী বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রবেশ টিকেটের উপর প্রতিদিন আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র এর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।

মানিকগঞ্জ জেলা প্রসাশকের যথাযথ অনুমতি সাপেক্ষে মানিকগঞ্জ জেলা পুলিশের উদ্যোগে আয়োজিত মেলাটি সুস্থ বিনোদনের মাধ্যমনিতে পরিনত হওয়ায় জেলা প্রসাশক ও জেলা পুলিশ সুপারসহ স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ সেইসাথে প্রিন্ট ও ইলেক্ট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন এম এ মঈন খান বাবলু।

মেলার সার্বিক ব্যবস্থা নিয়ে পুলিশ সুপার মুহাম্মাদ গোলাম আজাদ খান জানান, মেলায় প্রবেশের সময় মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেকিং করা সহ দিনে রাতে দুই স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি