বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম
রেল লাইনে পাথর নেই, মারাত্নক ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে ট্রেন ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিহ্মোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় দেশে পরিবেশ বান্ধব কৃষি ও শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের আহবান বোপমা সভাপতির হাতীবান্ধায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ মামলার মূল আসামী শাহিন গ্রেফতার সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বরিশালে আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল খেলাপি বৃদ্ধির শীর্ষে ২০ ব্যাংক বিমানবন্দরে ভক্তদের উদ্দেশ্যে যা বললেন শাকিব খান বরিশাল শেবাচিমে অধ্যক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ তেলের দাম বাড়ায় ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছেন: বাণিজ্যমন্ত্রী বামদের হরতালে বিএনপির সমর্থন

নোয়াখালীতে মেম্বারের মারধর, অপমানে এক ব্যক্তির আত্মহত্যা

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে প্রকাশ্যে মেম্বার মারধর করায় আলা উদ্দিন (৩২) নামে এক ব্যক্তি বিষপান করে আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
বুধবার ভোর ৫টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঢাকার একটি হাসপাতালে মারা যান আলা উদ্দিন। এরআগে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় স্থানীয় সেলিম বাজারে চৌধুরী মাঝির দোকানের সামনে প্রকাশ্যে ওয়ার্ড মেম্বার কেফায়েত উল্যাহ তাকে লাঠি দিয়ে মারধর করেন।

আলা উদ্দিন উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের পূর্ব চরমজিদ গ্রামের আবদুল হকের ছেলে। তিনি দুই ছেলের জনক।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে নিহতের এক আত্মীয় জানান, পারিবারিক তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আলা উদ্দিনের মামা আবদুল হক তাকে ধরে নিয়ে যায় বাজারে। সেখানে ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার কেফায়েতের কাছে তার বিরুদ্ধে বিচার দাবী করে। এক পর্যায়ে মেম্বার কেফায়েত তাকে গালমন্দ করে এবং প্রকাশ্যে লাঠি দিয়ে মারধর করে। এতে অপমানিত হয়ে বাড়িতে গিয়ে রাতে আলা উদ্দিন বিষ পান করে। পরে তাকে দ্রুত সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার করে। আত্মীয় স্বজনরা তাকে রাতেই ঢাকায় নিয়ে যায়। সেখানে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হলে বুধবার ভোরে সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়।

আলা উদ্দিনকে মারধের বিষয়টি অস্বীকার করে ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার কেফায়েত উল্যাহ বলেন, আলা উদ্দিন তার মাকে প্রায়শ মারধর করে। মঙ্গলবার আলা উদ্দিনের কাছে তার মা আম খেতে চাইলে মায়ের সঙ্গে অশোভন আচরণ করে আলা উদ্দিন। বিষয়টি তার মা মায়া বেগম তাকে (মেম্বার) জানালে আলা উদ্দিনকে ডেকে আনা হয়। প্রকাশ্যে আলা উদ্দিন অপরাধ করেছে বলে স্বীকার করলে তাকে মায়ের কাছে ক্ষমা চাইতে বলা হয়। কিন্তু সে মায়ের কাছে ক্ষমা না চেয়ে বিষ পান করে।

চরজব্বার থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে পারিবারিক বিষয় নিয়ে নিজের মায়ের সাথে খারাপ আচারন করে আলা উদ্দিন। পরে এ বিষয়ে তাকে নিয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য জিজ্ঞাসাবাদ করলে ক্ষিপ্ত হয়ে সে একটি বোতল ভেঙে বিষপান করে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ ফেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি