মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:১৪ অপরাহ্ন

কুমিল্লায় কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধিতে ৭ দেশের প্রতিনিধিদের শ্রদ্ধা

আবদুল মান্নার, কুমিল্লা প্রতিনিধি : দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত সৈনিকদের স্মরণে কুমিল্লা সেনানিবাস সংলগ্ন ময়নামতি কমনওয়েলথ যুদ্ধ সমাধিতে (ওয়ার সিমেট্রি) শ্রদ্ধা জানিয়েছেন ৭ দেশের রাষ্ট্রদূত, হাই কমিশনার ও প্রতিনিধিরা।

শনিবার ১১ নভেম্বর সমাধিস্থলে উপস্থিত হয়ে ফুলেল শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, ভারত ও পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার এবং প্রতিনিধিগণ।

এসময় তারা সেখানে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে নীরবতা পালন করেন। বিউগলে বেজে উঠে করুন সুর। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে শহীদদের স্মৃতিফলক ঘুরে দেখেন তারা। শনিবার সকালে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত এবং বাইবেল পাঠের মাধ্যমে অনুষ্ঠার শুরু হয়। এরপর পর্যায়ক্রমে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাইকমিশনার সারাহ কুক, যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত পিটার ডি. হাস, জাপানের রাষ্ট্রদূত ইওয়ামা কিমিনোরি, অস্ট্রেলিয়ান ডেপুটি হাই কমিশনার নার্দিয়া সিম্পসন, ভারতের প্রতিরক্ষা প্র্রতিনিধি বিগ্রেডিয়ার এম এস সাবারওয়াল, পাকিস্তানের প্রতিনিধি সাইয়েদ আহমেদ মারুফসহ ব্রিটিশ কাউন্সিল ও বিভিন্ন দেশের মোট ৬৮ জন অতিথি।

কুমিল্লায় কমনওয়েলথ যুদ্ধসমাধিতে ৭ দেশের প্রতিনিধিদের শ্রদ্ধা জ্ঞাপন প্রার্থনা পর্ব শেষে সমাধি ক্ষেত্রে হলিক্রসের পাদদেশে ফুলেল শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন কুমিল্লা সেনানিবাসের ৩৩ আর্টিলারি বিগ্রেড কমান্ডার বিগ্রেডিয়ার জেনালের মোঃ রাব্বি আহসান এনডিসি, পিএসসি। এর আগে গার্ড অব অনার প্রদান করা হয়। প্রসঙ্গত, কুমিল্লার ময়নামতি ওয়ার সিমেট্টিতে ১৯৪১ সাল থেকে ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে নিহত ৭৩৮ জন সেনাকে সমাহিত করা হয়। ১৯৬২ সালে ১ জনের দেহাবশেষসহ সমাধির মাটি তার স্বজনরা যুক্তরাষ্ট্রে নিয়ে গেলে এখানে বর্তমানে সমাধি রয়েছে ৭৩৭ জনের। ১৩টি দেশের ৭৩৭ জন যোদ্ধার মধ্যে মুসলিম ধর্মের ১৭২ জন, বৌদ্ধ ধর্মের ২৪ জন, হিন্দু ধর্মের ২ জন এবং বাকিরা খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী। এদের মধ্যে ৫শ ৬৭ জন নাবিক, ১শ ৬৬ জন বৈমানিক ও ৩ জন সৈনিকের সমাধি রয়েছে। এর মধ্যে যুক্তরাজ্যের ৩শ ৫৭ জন, কানাডার ১২ জন, অষ্ট্রেলিয়ার ১২ জন, নিউজিল্যান্ডের ৪ জন, দক্ষিণ আফ্রিকার ১ জন, অবিভক্ত ভারতের ১শ ৭১ জন, রোডেশিয়ার ৩ জন, পূর্ব আফ্রিকার ৫৬ জন, পশ্চিম আফ্রিকার ৮৬ জন, বার্মার ১ জন, বেলজিয়ামের ১ জন, জাপানের ২৪ জন এবং পোল্যান্ডের ১ জনের সমাধি রয়েছে। কমনওয়েলথ গ্রেভ ইয়ার্ড কমিশন এ যুদ্ধ সমাধি ক্ষেত্র তৈরি ও রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব পালন করে।

প্রতিবছর এসময়ে কমনওয়েলথ্ভুক্ত দেশের রাষ্ট্রদূত, হাইকমিশনার, কূনীতিক ও প্রতিনিধিরা তাদের সমাধিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে তাদের স্মরণ করেন। সে ধারাবাহিকতায় শনিবারও তাঁরা সেখানে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: