মঙ্গলবার, ০৯ মার্চ ২০২১, ০৩:২৩ পূর্বাহ্ন

গাজীপুরে বশেমুরকৃবিতে জাতীয় শোক দিবস পালিত

গাজীপুর থেকে মানিক সরকার : স্বাধীনতার মহান স্থপতি, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে যথাযোগ্য মর্যাদায় ও ভাবগম্ভীর্যের মধ্য দিয়ে পালিত হয়।

সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিতকরণ, কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণ করা হয়। সকাল ১০-৩০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াস উদ্দীন মিয়া এর নেতৃত্বে শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদেও অংশ গ্রহণে একটি শোক র‌্যালী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে স্থাপিত বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতি, গণতান্ত্রিক শিক্ষক পরিষদ,বঙ্গবন্ধু কর্মকর্তা পরিষদ, বঙ্গবন্ধু কর্মচারী পরিষদ ও বশেমুরকৃবি স্কুল বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে। পুষ্পার্ঘ শেষে সকাল ১১-০০ টায় বিশ্ববিদ্যালয় অডিটরিয়ামে ‘বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

পরিচালক (ছাত্রকল্যাণ) প্রফেসর ড. মো. খোরশেদ আলম ভূঁঞার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মো. গিয়াস উদ্দীন মিয়া উপস্থিত ছিলেন।

ভাইস-চ্যান্সেলরতার বক্তৃতায় ১৯৭৫ এর ১৫ আগস্টেও সকল শহীদেও প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, ক্ষণজন্মা বঙ্গবন্ধু ৫৫ বছরের জীবনে ১৩ বছরই অধিকার আদায়ের সংগ্রামের জন্য কারাগারে থেকেছেন। তিনি বাংলার মাটি ও মানুষকে অসম্ভব ভালবাসতেন এবং মানুষের মনের কথা বুঝতেন বলেই তিনি জাতির পিতা হতে পেরেছেন।

বঙ্গবন্ধু দেশ এবং মানুষকে নিয়ে স্বপ্ন দেখতেন, স্বপ্ন পূরণে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে গভীর দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে নিজনিজ দায়িত্ব পালনে সচেষ্ট হতে সকলের প্রতি আহবান জানান।

আলোচনা অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর তোফায়েল আহমেদ।

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন ছাত্রকল্যাণ দপ্তরের সহযোগী পরিচালক প্রফেসর ড. মো. বদরুজ্জামান। আলোচনায় আরো বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক সমিতির সভাপতি প্রফেসর ড. মো. তোফাজ্জল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. মো; আরিফুর রহমান খান, রেজিস্ট্রার মো; সিরাজুল ইসলাম তালুকদার ও বঙ্গবন্ধু কর্মচারী পরিষদেও আহবায়ক মো: আব্দুর রউফ মোল্লা। কর্মসূচিতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ডীন, পরিচালক, প্রক্টর, প্রভোস্ট, রেজিস্ট্রারসহ শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় মসজিদে ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদেও আত্মার মাগফেরাত, দেশ ও জাতির সমৃদ্ধি মঙ্গল কামনা করে কোরআন খতম এবং বিশেষ মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি