বৃহস্পতিবার, ১৩ মে ২০২১, ০৯:৪১ অপরাহ্ন

বাগেরহাটে প্রতিপক্ষের হামলা ভাংচুর লুটপাটে আহত ৭ থানায় মামলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি :: বাগেরহাট আওয়ামীলীগ নেতার বাড়ীতে হামলা,ভাংচুর ও লুটপাট ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। সদর উপজেলার ভাতসালা গ্রামের ইয়াকুব ফকিরের স্ত্রী সাফিয়া বেগম বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। হামলায় আহত ভাতশালা গ্রামের ইয়াকুব ফকিরের ছেলে বাবু ফকির (২৭) অবস্থা গুরুত্বর হওয়ায় তাকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে ও আলী শেখের ছেলে মতিন শেখ (২৩) কে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার বিকেল তিনটায় শহরতলীর ভাতশালা গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মনির হোসেন তরফদার তার সহযোগী হাসান,মুকুল ও রনি তরফদারের নেতৃত্বে ১৫/২০জনের একদল সন্ত্রাসী বাগেরহাট সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের এান ও সমাজ কল্যান সম্পাদক ও সাবেক গোটাপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি তরিকুল ইসলাম ছোট বাড়ীতে ঢুকে পুর্ব শক্রতার জেরে বাড়ী ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে ।

এতে ঘরের মালামাল সহ প্রায় চার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি সাধন করে। এসময় বাধা দিতে গেলে আওয়ামীলীগ কর্মী বাবু ফকির (২৭) মতিন শেখ (২৮) গদাই শেখ (২৩) সোহরাব মোল্লা (৫১ কে ধারালো দা দিয়ে কুপিয়ে গুরুত্বর জখম করে। এসময় আহতদের ডাকচিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে পুলিশকে খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ গুরুত্বর আহত চার জনকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। আহত ইয়াকুব আলী ফকির(৮৫) রিজিয়া বেগম(৭৫) সাফিয়া বেগম (৬০) কে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

প্রতিপক্ষের হামলায় গুরুত্বর আহত বাবু ফকির ও মতিন শেখকে বাগেরহাট মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ রেজাউল করিম রানা খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করে। বাবু ফকিরের অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

বাগেরহাট মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ কে এম আজিজুল ইসলাম বলেন, এ বিষয়ে লিখিত অভিযোগ অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। হামলার ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতদের উদ্বার করে সদর হাসপাতালে চিকিসার জন্য ভর্তি করে। ঘটনাটি সঠিক তদন্ত তরে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি