বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ১২:১৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম
সুবর্ণচরে ঘূর্ণিঝড় রিমেলের রাতে অসহায় ব্যবসায়ীর দোকান লুট ও উচ্ছেদের অভিযোগ রাজশাহী নগরীতে ৬৬ হাজার ৫১৩ জন শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে নগরীতে পুলিশের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত গ্রেপ্তার ময়নার শেষ কথা” চলচ্চিত্র নিয়ে আসছে ইরা শিকদার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আ’লীগের নেতা কর্মিদের মত বিনিময় সভা সুবর্ণচরে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ সাবেক ইউপি সদস্য মাহে আলমের বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫

নরসিংদীর পাঁচদোনায় পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

ছবি : ঘটনাস্থল

নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর পাঁচদোনায় নানার বাড়িতে বেড়াতে এসে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) বিকালে সদর উপজেলার পাঁচদোনার তুলসীপুরস্থ পারিজা ও আসরিয়া নামক নির্মাণাধীন দুটি কারখানার বালু ভরাটের গর্তের পানিতে পড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে।

নিহত দুই শিশু হলো শিবপুর উপজেলার ভিটিপাড়া এলাকার আবুল কালামের ছেলে ইউসুফ (১১) ও সদর উপজেলার মধ্যশীলমান্দি গ্রামের দেলোয়ার হোসেনের ছেলে শাহাদৎ (১১)। নিহত দুই শিশু ওই এলাকায় তাদের নানার বাড়িতে বেড়াতে এসেছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পারিজা ও আসরিয়া নামক দুটি কারখানা স্থাপনের জন্য যৌথভাবে তাদের জায়গায় ড্রেজার পাইপের মাধ্যমে বালু ভরাট করা হচ্ছিল। বালু ভরাটের ওই স্থানটি চারপাশে দেয়াল বেষ্টিত থাকলেও দুপুরে স্থানীয় দুই শিশু ইউনুছ ও সোহান তাদের গ্রামে নানার বাড়িতে বেড়াতে আসা অপর দুই শিশু ইউসুফ ও শাহাদৎকে নিয়ে দেয়াল টপকিয়ে বালু ভরাটস্থলে ঢুকে পড়ে। পরে চার শিশু খেলার ছলে বালুর পানিতে সৃষ্ট গর্তে গোসল করতে নামে। তাদের মধ্যে ইউনুছ ও সোহান গর্ত থেকে উপরে ওঠে আসতে সক্ষম হলেও ইউসুফ ও শাহাদৎ পানিতে তলিয়ে যায়। পরে উপরে উঠে আসা ওই দুই শিশু তাদের স্বজনদের এ ঘটনাটি জানালে তারা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বালুর নিচ থেকে দুই শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে।

শেখেরচর পুলিশ ফাঁড়ির দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা অভিজিৎ চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: