শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৩:৪৭ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

ইন্দোনেশিয়ায় সিনোভ্যাকের টিকা প্রয়োগ শুরু

নিউজ ডেস্ক :: ইন্দোনেশিয়ায় করোনাভাইরাস প্রতিরোধে চীনের তৈরি সিনোভ্যাক টিকা প্রয়োগ শুরু হয়েছে। প্রথম টিকা নিয়েছেন দেশটিরশি। এ খবর বার্তা সংস্থা এএফপি’র।

আজ বুধবার (১৩ জানুয়ারি) ২৭ কোটি জনসংখ্যার দ্বীপ রাষ্ট্রটিতে গণটিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়।

রাজধানী জাকার্তায় রাষ্ট্রীয় প্রাসাদে ৫৯ বছর বয়সী প্রেসিডেন্ট জোকো উইদোদো টিকা গ্রহণ করেন। তার টিকা নেয়ার পুরো সময়টা টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। এই সময় স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ বেশ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা ও ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ ছিলেন উপস্থিত ছিলেন।

টিকা নেয়ার সময় হাসতে হাসতে প্রেসিডেন্ট উইদোদো বলেন, ‘আমি আসলে তেমন কিছু অনুভব করছি না।’

প্রেসিডেন্টের পরে ইন্দোনেশিয়ার সামরিক বাহিনীর প্রধান, পুলিশ প্রধান ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ অন্যরাও এই টিকা নিয়েছেন।

উইদোদো আরও বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ প্রবাহ বন্ধ করতে এই টিকাদান কর্মসূচি গুরুত্বপূর্ণ। ইন্দোনেশিয়ার সবার নিরাপত্তা ও সুস্থতার জন্য এমন একটি টিকা অপরিহার্য।’

চলতি সপ্তাহে চীনের তৈরি সিনোভ্যাকের টিকার ব্যবহার অনুমোদন করেছে ইন্দোনেশিয়ার ওলামা কাউন্সিল। জানানো হয়, ইসলামি নিয়মকানুন অনুযায়ী সিনোভ্যাকের টিকা ব্যবহারের যোগ্য।

মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশটির শীর্ষ ধর্মীয় নেতারা এই টিকাকে হালাল বলে সায় দিয়েছেন। ইতিমধ্যে দেশটি প্রায় ৩০ লাখ ডোজ গ্রহণ করেছে সিনোভ্যাকের কাছ থেকে।

দক্ষিণপূর্ব এশিয়ার দেশটিতে এ পর্যন্ত সাড়ে আট লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মৃত্যুর সংখ্যা প্রায় ২৫ হাজার। তবে ইন্দোনেশিয়ায় পরীক্ষার হার কম থাকায় আসল সংক্রমণ সংখ্যা প্রত্যাশার চেয়েও বেশি বলে ধারণা করা হচ্ছে।
এএইচ/


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: