রবিবার, ১৬ Jun ২০২৪, ০১:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

শুক্রবার থেকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ আসছে

নিউজ ডেস্ক :: মাঘ মাসের প্রথম পাঁচ দিন দেশের বিভিন্ন এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যায়। এরই মধ্যে ফের শৈত্যপ্রবাহের পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, শুক্রবার থেকে ফের বিভিন্ন এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে। ওই শৈত্যপ্রবাহ তীব্র মাত্রায় রূপ নেয়ারও শঙ্কা রয়েছে। দেশের আকাশে মেঘ থাকায় বুধ ও বৃহস্পতিবার প্রায় সারাদেশেই রাতের তাপমাত্রা ১-৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে।

একই সঙ্গে দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে। এ দুই দিন দেশের বিভিন্ন এলাকায় হালকা বৃষ্টিরও সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানায় আবহাওয়া অফিস।

আবহাওয়া অফিস জানায়, আকাশে মেঘ থাকায় সূর্যের আলো সরাসরি প্রবেশ করতে পারবে না, এ কারণে সারাদেশেই দিনের তাপমাত্রা সামান্য কমতে পারে এবং রাতের তাপমাত্রা সর্বোচ্চ ৩ ডিগ্রি পর্যন্ত বাড়তে পারে। এ দুই দিন দেশের অনেক জায়গায় হালকা বৃষ্টি হতে পারে। বৃষ্টির মাধ্যমে মেঘ কেটে গিয়ে শুক্রবার থেকে আবার দিনের তাপমাত্রা বেড়ে যাবে এবং রাতের তাপমাত্রা কমতে শুরু করবে। তখন ফের কিছু এলাকায় শৈত্যপ্রবাহ শুরু হতে পারে।

অধিদপ্তরের দীর্ঘমেয়াদী পূর্বাভাসে বলা হয়েছিল, চলতি জানুয়ারি মাসে ১-২টি শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে। এরমধ্যে একটি তীব্র শৈত্যপ্রবাহে রূপ নিতে পারে।

অধিদপ্তরের তথ্যমতে, সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৪-৬ ডিগ্রির মধ্যে থাকলে তাকে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বলা হয়। চলতি মাসে ইতিমধ্যে একটি শৈত্যপ্রবাহ বিদায় নিয়েছে। এই শৈত্যপ্রবাহে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা সাতের নিচে নামলেও ৬ ডিগ্রিতে যায়নি।

শুক্রবার থেকে শুরু হতে যাওয়া সম্ভাব্য শৈত্যপ্রবাহ তীব্র মাত্রায় রূপ নিতে পারে।
এসএ/


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: