মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫ বিদেশি ঋণের প্রকল্প দ্রুত শেষ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চৌদ্দগ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছুড়িআঘাতে যুবক নিহত, গ্রেফতার-২ নোয়াখালী সুবর্ণচরে গাভীর সিজারিয়ান অপারেশন নোয়াখালী সদরে হজ্ব প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থীসহ ৯জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামীর জানাজা অনুষ্ঠিত

মোঃ রাসেল মিয়া, নরসিংদী প্রতিনিধি : ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামীর জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় নরসিংদীর শিবপুর উপজেলার মুনসেফেচর (ইটাখোলা) নিজ বাড়ির ঈদগা মাঠেজানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। পূর্বের ঘোষণা মোতাবেক স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে স্বল্প সংখ্যক মুসল্লির উপস্থিতিতে হয়েছে এই জানাজা। পরে পারিবারিক কবরস্থানে লাশ দাফন করা হয়।

জানাজা নামাজে উপস্থিত ছিলেন শিবপুর আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জহিরুল হক ভুইয়া মোহন, শিবপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব হারুনুর রশীদ খান, ইসলামী ঐক্যজোটের নরসিংদী জেলা শাখার সভাপতি মাওলানা মজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এইচ এম হারিছুল হক, উপদেষ্টা মাওলানা আব্দুল কাউয়ুম ও তার ছেলে ওবায়দুল হক।

উল্লেখ্য সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর একটি বেসরকারী হাসপাতালে তিনি ইন্তেকাল করেন (ইন্নাল্লিহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। মৃত্যুকালে মাওলানা নেজামীর বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।

তিনি দুই ছেলে দুই মেয়েসহ অসংখ্য আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ইসলামী ঐক্যজোটের মহাসচিব মুফতি ফয়জুল্লাহ বলেন, সোমবার ইফতারের পর মাগরিবের নামাজের জন্য অজু করতে গিয়ে পড়ে গিয়েছিলেন মাওলানা নেজামী। পরে হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

তার মৃত্যুতে আমরা একজন বর্ষীয়ান রাজনীতিক ও আমাদের মুরুব্বিকে হারালাম। মাওলানা নেজামী ধর্মভিত্তিক রাজনৈতিক অঙ্গনে সজ্জন রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তিনি নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছিলেন।

মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী প্রায় ছয় দশক রাজনীতিতে সক্রিয় ছিলেন। মুফতি ফজলুল হক আমিনীর মৃত্যুর পর থেকে তিনি আমৃত্যু ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন।

মাওলানা নেজামী হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমির ছিলেন। তার নেতৃত্বাধীন ইসলামী ঐক্যজোট দীর্ঘ ১৮ বছর বিএনপির সঙ্গে জোটে ছিল। ২০১৭ সালে তার দল বিএনপি জোট ত্যাগ করে। উলে­খ্য মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী দৈনিক সরকার পত্রিকার সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: