শুক্রবার, ১৮ Jun ২০২১, ০৬:৩৯ অপরাহ্ন

লকডাউন শিথিল করে ভুলপথে হাঁটছেন প্রধানমন্ত্রী : রিজভী

নিউজ ডেস্ক : লকডাউন শিথিল করার কারণে বাংলাদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লকডাউন শিথিল করে ভুল পথে হাঁটছেন।’ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার বরপা এলাকায় তারাবো পৌরসভা বিএনপির সভাপতি নাসির উদ্দিনের বাড়িতে অসহায়দের মাঝে ত্রাণ বিতরণের সময় এ কথা বলেন রিজভী।

এ সময় রিজভী আরো বলেন, ‘মানুষের কাছে কোনো জবাবদিহিতা নেই সরকারের। বিনা ভোটে নির্বাচিত সরকারের জনগণের প্রয়োজন নেই। কারণ, রাতের আঁধারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাদের ভোটের ব্যালট বাক্স ভরে দেয়। সংসদে যারা আছে, তারা সবাই তাদের অনুগত। সরকার যা বলে, সরকারি দল বিরোধীদল সভায় প্রধানমন্ত্রীর কথায় তালি দেয়। সে কারণে তাদের কোনো জবাবদিহিতা নেই, জনগণের কাছে কোনো দায়বদ্ধতা নেই।’

বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব আরো বলেন, ‘করোনার ভয়াবহতা শুরু হওয়ার পরও তাদের নিজেদের একটি অনুষ্ঠান নিয়ে ব্যস্ত ছিল সরকার। এদিকে তারা কোনো খেয়াল দেয়নি। সে কারণে আজ বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করেছে।’

মানুষের ঘরে ঘরে ত্রাণ পৌঁছে দেওয়ার কথা থাকলেও সরকার তা করছে না উল্লেখ করে রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মেম্বার-চেয়ারম্যান অসহায় সাধারণ মানুষকে ত্রাণ না দিয়ে নিজেদের ঘরে, পুকুরে, খালে-বিলে, খাটের নিচে তা লুকিয়ে রাখছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এসব সামগ্রী ওই সব মেম্বার-চেয়ারম্যানদের বাড়ি থেকে উদ্ধার করছে। এতে প্রমাণিত হয়, সরকার সাধারণ মানুষকে ত্রাণ দিচ্ছে না।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী লীগের মন্ত্রীরা বাসায় হোম কোয়ারান্টিনে থেকে ভিডিওবার্তা পাঠাচ্ছেন। মাঠের চিত্রের সঙ্গে তাঁদের কোনো সংযোগ নেই। জনগণের সঙ্গে তাঁদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই। যে কারণে তারা বিএনপির ত্রাণ বিতরণ নিয়ে নানা কথাবার্তা-অপপ্রচার চালাচ্ছেন।’

বিএনপির এই নেতা আরো বলেন, ‘দেশের দুর্যোগের সময় খালেদা জিয়া ও তারেক জিয়ার সৈনিকরা অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আজ তারাবো বিএনপির সভাপতি তাঁর নিজের পকেটের পয়সা দিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। আর সরকার সরকারি ত্রাণসামগ্রী নিয়ে মানুষের মধ্যে বিতরণ না করে দলীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিতরণ করছেন।

রিজভী বলেন, ‘করোনার প্রথম সারির যোদ্ধা চিকিৎসক, সাংবাদিক ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা প্রতিদিনই কারোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। চিকিৎসক, সাংবাদিক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আক্রান্ত হয়ে মারা যাচ্ছেন। কিন্তু তাঁরা সঠিক চিকিৎসা পাচ্ছেন না। তাঁদের পর্যাপ্ত পিপিই দেওয়া হয়নি।’

রিজভী আরো বলেন, ‘সারা পৃথিবীতে যখন মহামারি চলছে, ঠিক সেই সময়ে বাংলাদেশে লকডাউন শিথিল করার কারণে পথে-ঘাটে নদীর তীরে মানুষ পড়ে মারা যাচ্ছে। কিন্তু সরকার কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারছে না।’

তারাবো পৌর বিএনপির সভাপতি ও জেলা বিএনপির সাবেক সহসভাপতি নাসির উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিএনপির বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি