সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১২:১৯ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫ বিদেশি ঋণের প্রকল্প দ্রুত শেষ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চৌদ্দগ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছুড়িআঘাতে যুবক নিহত, গ্রেফতার-২ নোয়াখালী সুবর্ণচরে গাভীর সিজারিয়ান অপারেশন নোয়াখালী সদরে হজ্ব প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থীসহ ৯জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

নরসিংদীর শিবপুরে কিশোরীর গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার

মোঃ রাসেল মিয়া, নরসিংদী প্রতিনিধি : নরসিংদীর শিবপুরে ঝুমা আক্তার (১২) নামের এক কিশোরিকে শ্বাসরোধ ও গলা কেটে হত্যা করছে দুর্বৃত্তরা। ৬ আগষ্ট রাতে শিবপুর উপজেলার দুলালপুর ইউনিয়নের খামার শিমুলিয়া গ্রামে রাতে কোন এসময় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ঝুমা আক্তার শিমুলিয়া গ্রামের মুকুল মিয়ার দ্বিতীয় সংসারের মেয়ে। সে পারিবারিক অভাবের কারণে ঠিকমত লেখা পড়া করতে পারেনি। তবে আবার নতুন করে স্থানীয় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তৃতীয় শ্রেণির ভর্তি হয়েছিল।

আজ শুক্রবার (৭ আগস্ট) দুপুরে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে শিবপুর মডেল থানা পুলিশ।

নিহতের বাবা মুকুল মিয়া জানান, গতকাল ৩ ঘটিকার সময় বাড়ির পাশে মাদ্রাসার টিউবওয়েলে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ঝুমা। পরে অনেক খোঁজাখোজি করে কোথাও পাওয়া যায়নি। আজ সকালে বাড়ির পাশে ইব্রাহিমের কলাবাগানে লাশ দেখতে পেয়ে এলাকার লোকজন পুলিশকে খবর দেয়।

খবর পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠায়। আমার মেয়েকে কে বা কাহারা হত্যা করেছে তা আমার জানা নেই। আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবী করছি।

শিবপুর থানার ওসি (তদন্ত) মমিনুল ইসলাম জানান, গতকাল বিকেলে বাড়ীর পাশে নির্মানাধীণ মাদ্রাসার টিউবয়েলে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ হয় ঝুমা। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে কলাবাগানে নিয়ে এক বা একাধিক ব্যক্তি ধর্ষণ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে তাকে শ্বাসরোধ ও গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।

প্রকৃত ঘটনা উদঘাটন করার জন্য মরদেহের সুরতহাল তৈরী করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্ত রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত বলা যাবে। এ ঘটনায় নির্মানাধীণ মাদ্রাসার চার শ্রমীককে প্রথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়নি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: