শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ১২:৪৬ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

নতুন করে সাজছে বিএনপি কার্যালয়

আগামী জাতীয় নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যখন চারদিকে রাজনৈতিক ডামাডোল শুরু হয়েছে, ঠিক তখনি দলের নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়কে নতুন করে সাজানোর উদ্যোগ নিয়েছে বিএনপি। ইতোমধ্যে কার্যালয়ের প্রবেশমুখে নতুন করে বসানো হয়েছে ডিজিটাল সাইনবোর্ড ও লাগানো হয়েছে দলের প্রতিষ্ঠাতাসহ শীর্ষ দুই নেতার ছবি।

তবে, পাঁচতলা ভবনের বাকি ফ্লোরগুলো এখনও আগের মতোই আছে। আগামী ২৮ অক্টোবর রাজধানীতে মহা-সমাবেশের পর সেই ফ্লোরগুলোর মেরামতের কাজও শুরু হবে বলে জানা গেছে।

বিএনপির নেতারা বলছেন, গত বছরের ১০ ডিসেম্বর বিএনপির সমাবেশকে কেন্দ্র করে পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা গত ৭ ও ৮ ডিসেম্বর নয়াপল্টন কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ফ্লোরে ভাঙচুর করে। এতে অনেক জিনিস ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এছাড়া দীর্ঘদিন সংস্কার না হওয়া বিভিন্ন আসবাবপত্র পুরোনো হয়ে গেছে এবং অনেকগুলো ভেঙেও গেছে। যার ফলে নতুন করে কার্যালয় মেরামত করার কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে।

এছাড়া আগে দলের ডিজিটাল লোগো ছিল না, সেটা নতুন করে লাগানো হয়েছে। তবে পুরো কার্যালয় মেরামতের কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হবে আগামী ২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশের পর।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বিএনপির ৫ তলা ভবনের নিচতলার প্রবেশপথের ডানপাশের দেয়ালে বড় অক্ষরে ‘BNP’ লেখা ডিজিটাল সাইনবোর্ড স্থাপন করা হয়েছে। তার বিপরীত পাশের দেয়ালে লাগানো হয়েছে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান, বর্তমান চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ছবি। লাগানো হয়েছে এলইডি লাইট। একইসঙ্গে দলের প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ম্যুরালটিও নতুন করে সংস্কার করা হয়েছে। এছাড়া কার্যালয়ের তৃতীয় তলায় লাগানো হয়েছে নতুন টাইলস এবং কনফারেন্স রুমে লাগানো হয়েছে বড় মনিটর।

বাকি ফ্লোরগুলো এখনো আগের মতোই আছে। কার্যালয়ে ওঠার সিড়িগুলোতেও খুব একটা পরিবর্তন লক্ষ করা যায়নি। সেখানে আগের মতোই সাঁটানো আছে খালেদা জিয়াসহ বিভিন্ন নেতাদের মুক্তি চাওয়া পোস্টার।

আরও দেখা যায়, সংস্কারের পর কার্যালয়ের প্রবেশমুখে অনেক নেতাকর্মীকে ছবি তুলতে দেখা গেছে। তারা বলছেন, সংস্কার কাজ হওয়া পর কার্যালয়ের সৌন্দর্য অনেক বৃদ্ধি পেয়েছে। নতুন রূপ পেয়েছে পার্টি অফিস।

এ বিষয়ে বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার ঢাকা পোস্টকে বলেন, ২০১১ সাল থেকে একাধিকবার পুলিশ বিএনপির কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে। সর্বশেষ গত বছরের ৮ ডিসেম্বর পুলিশ অভিযান চালিয়ে ভাঙচুর করেছে। যার ফলে এখন নতুন করে সংস্কার কাজ শুরু হয়েছে। এর মধ্যে কিছু কাজ শেষ হয়েছে, বাকি কাজ ২৮ অক্টোবরে পর আবার শুরু হবে।

নতুন রূপে পার্টি অফিস ক্যাপশনে ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেছেন ছাত্রদলের সাবেক সহ-সভাপতি মো. এজমল হোসেন পাইলট। তিনি ঢাকা পোস্টকে বলেন, গত ৮ ডিসেম্বরে হামলায় পার্টি অফিসের সবকিছু তছনছ করে ফেলা হয়েছে। এখন সেটার মেরামতের কাজ শুরু হয়েছে। পাশাপাশি কার্যালয়ের প্রবেশমুখে দলের তিন নেতার ছবি লাগানো হয়েছে। যা তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মনে সাহস ও মানসিক শক্তির যোগান দেবে বলে আমি মনে করি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: