শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ০৯:৫৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

সুবর্ণচরে ঘূর্ণিঝড় রিমেলের রাতে অসহায় ব্যবসায়ীর দোকান লুট ও উচ্ছেদের অভিযোগ

মোঃ আবদুল আজিজ, উপজেলা প্রতিনিধি, সুবর্ণচর : সুবর্ণর উপজেলা চরজুবলী ৭নং ওয়ার্ড, উত্তর কচ্ছপিয়া,মন্নানের দোকানে ঘূর্ণিঝড় রিমেলের রাতে এক অসহায় ব্যবসায়ীর দোকানঘর লুটপাট ও ভেঙ্গে পেলার অভিযোগ উঠে।

গত ২৭ মে রোজ সোমবার রাত প্রায় ১টার দিকে মহা ঘূর্ণিঝড়ে রাতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে চরজুবলী উত্তর কচ্ছপিয়ামন্নানের দোকানে এই ঘটনাটি ঘটে।

অভিযোগকারী,মনির আহমেদের ছেলে মোঃ আলাউদ্দিন (৩৯) সাংবাদিকদের জানান গত ২৭ই মে ঘূর্ণিঝড় রিমেলের রাত্রে আমি আমার দোকানে ঘুমাচ্ছিলাম হঠাৎ করে শব্দ শুনে আমি ঘুম থেকে উঠে দেখি আমার আলাউদ্দিন স্টোর দোকানটি আব্দুল মালেকের ছেলে আবদুল মান্নান (৩০) মৃত আবদুর রহমানের ছেলে আবদুর রহিম রাজু( ৩২),আবদুল খালেক এর ছেলে মন্জু( ২৫), মৃত আবদুস সালামের ছেলে আবদুল খালেক( ৫৮)সহ আরো অজ্ঞাত ৭-৮জন লোক মিলে আমার দোকান ঘরটি ঠেলে ফেলে দেওয়ার চেষ্টা করে।তখন আমি ঘটনাস্থলে উপস্থিত হইলে তারা দৌড়ে পালিয়ে যায়। তারা সবাই চরজুবলী, ৭নং ওয়ার্ডের উত্তর কচ্ছফিয়ার বাসিন্দা। এই বিষয়টি আমি আমার স্থানীয় দোকানদার ও এলাকাবাসীদের কে অবগত করি, এবং আমার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ খসরুকে বিষয়টি অবগত করলে তিনি জানান আমি এই বিষয়টি সঠিক তদন্ত করে বিচার করবো তুমি অপেক্ষা করো।

এই ঘটনার সম্পর্কে স্থানীয় দোকানদার ও এলাকার বাসীর সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানান উক্ত বিষয়টি আমরা শুনেছি আলা উদ্দিন আমাদেরকে বলেছেন তার ঘর লুটপাট ও ভেঙ্গে ফেলার জন্য চেষ্টা করে, মন্নান, রাজু, মন্জু,আবদুল খালেক,আবদর রহিমসহ আরো ৭-৮ জন অজ্ঞাত লোক জন।

গত ৮ মে সুবর্ণচর উপজেলা নির্বাচনের রাত্রে আমাকে ডেকে নিয়ে মন্নান ও রাজু সহ ৪-৫জন আমার দোকান ঘরটি ছেড়ে দেওয়ার জন্য প্রাণনাশের হুমকি-ধুমকি দেয়, আমি এই বিষয়টি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সাইফুল্লাহ খসরু ভাইকে অবগত করি,তিনি জানান এটা ভোটের পরে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

অভিযুক্তকারী মন্নান ও রাজুর সাথে যোগাযোগ করলে তারা জানান, এইটা আমাদের জায়গা আমরা তাকে ভাড়া দিয়েছি কিন্তু সে এই কয়েকবছর আমাদেরকে ভাড়া দেয়না আমাদের জায়গা ছেড়েও দেয় না, সেই আমাদের বিরুদ্ধে ঘর ভেঙ্গে ফেলার যেই অভিযোগ করেছে এটা মিথ্যা বানোয়াট ও উদ্দেশ্য ফনিতো ও বৃত্তিহীন।

ভুক্তভোগী আলা উদ্দিন সাংবাদিকদেরকে জানান এই বিষয়ে আপনাদের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট প্রতিপক্ষের সাহায্য ও সহযোগিতা কামনা করি এবং এই বিষয়ে যারা জড়িত তাদের বিচারের দাবি জানাচ্ছি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: