বুধবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
কুষ্টিয়ায় সাব রেজিস্ট্রার হত্যা মামলায় ৪ আসামির ফাঁসি ও ১ জনের যাবজ্জীবন মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ আব্দুল লতিফ ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বাইসাইকেল বিতরণ করেন বিশ্বে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ছাড়াল ২৩ কোটি বিশ্বনেতাদের সামনে যে ৩ প্রস্তাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী মনে হচ্ছে আমি মারা যাওয়ার আগ পর্যন্ত কেউ দাঁড়াবে না : পাপন পলাশের জিনারদীতে প্রফেসর কামরুল ইসলাম গাজীর উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত বরগুনার তালতলীতে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরীকে ধর্ষণ, যুবক কারাগারে প্রধানমন্ত্রীকে জাতিসংঘের এসডিজি অগ্রগতি পুরস্কার প্রদান পূর্ণিমা ভক্তদের জন্য সুখবর ভালোবাসা ও লড়াইয়ের নতুন বার্তা দিলেন নুসরাত

যেসব লক্ষণে বুঝবেন আপনার হার্ট অ্যাটাক হতে পারে

নিউজ ডেস্ক :: যখন তখন হৃদরোগ হতে পারে। বয়স হলে এই আশঙ্কাই ঘিরে ধরে মানুষকে। বুকে হালকা চিন চিন ভাব ও নিঃশ্বাস নিতে সমস্যা হলেই মনে প্রশ্ন জাগে। কিন্তু ঠিক কোন লক্ষণ হার্ট অ্যাটাকের সংকেত বহন করে তা আমরা অনেকেই জানি না।

হার্ট অ্যাটাক পূর্বে শুধুমাত্র বয়স্কদের ক্ষেত্রেই দেখা যেত। কিন্তু যত দিন যাচ্ছে, অল্প বয়সীদের মধ্যেও বেড়ে গিয়েছে হার্ট অ্যাটাকের প্রবণতা। মনে রাখবেন, জাঙ্কফুড, কাজের নির্দিষ্ট সময় না থাকা ও ওয়ার্ক ফর্ম হোম হার্ট অ্যাটাকের অন্যতম কারণ।

পুরুষদের চেয়ে মহিলাদের হার্ট অ্যাটাক কম হয়। তবে মহিলাদের মেনোপজের পর হার্ট অ্যাটাকের সম্ভাবনা বেড়ে যায়। তাই, মেনোপজের পর মহিলাদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

এবার জেনে নিন হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ সম্পর্কে…

* বুকের মাঝ থেকে ব্যাথা শুরু হয়ে চারদিকে ছড়িয়ে যাচ্ছে। এমন হলে বুঝবেন হার্ট অ্যাটাকের সমূহ সম্ভাবনা রয়েছে। দেরি না করে শীঘ্র চিকিত্‍সকের পরামর্শ নিন।

* আগে যে কাজ অবলীলায় করতেন, তা করতেই ভীষণ হাঁপ ধরে যাচ্ছে। আপনার হার্ট যে দুর্বল হয়ে পড়েছে এটি তার অন্যতম লক্ষণ।

* অনিয়মিত হার্টবিট হলে নিজেই ভালো বুঝতে পারবেন। মাঝে মাঝে বাড়বে বা কমবে। তেমন ভয়ানক না হলেও ভয়ের কারণ রয়েছে। এরকম হলে চিকিত্‍সা নেয়া উচিত।

* হাত-পা-গোড়ালি ফুলে যাওয়া এটা সংকেত যে, আপনার হার্ট ঠিক মতো রক্ত পাম্প করতে পারছে না। দেরি না করে ডাক্তারের কাছে যান।

* হঠাৎ করে বুকে ব্যথা হলে সেটি হার্ট অ্যাটাকের লক্ষণ। যাকে বলা হয় মাওকার্ডিয়াল ইনফ্রাকশান। এই সময় শিরার মধ্যে রক্তের গতি বন্ধ হয়ে যায়। আবার কিছু ক্ষেত্রে গতি কমে যায়, কিন্তু বন্ধ হয় না। অনেক সময় দৌড় ঝাঁপ করার সময় শিরা ধমনী দিয়ে যতটা রক্ত যাতায়াত করে ততটা জোরে হার্ট পাম্প করতে পারে না। তখন ব্যাথা হয়। এরকম মানুষদের হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা থাকে। সূত্র: জি নিউজ

এএইচ/

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি