বৃহস্পতিবার, ০৪ মার্চ ২০২১, ০৯:৩৬ পূর্বাহ্ন

বাগেরহাটের ডিসি মোংলা পশুরনদীর ভাঙ্গনে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন (ভিডিও)

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলম : পশুর নদীর ভাঙ্গনের ফলে ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য জরুরী ভিত্তিতে এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। এর আগেও ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করা হয়েছে।

পুনরায় আমরা আবার সবাইকে নিয়ে পরিদর্শন করলাম। ঘূর্ণিঝড় ”আম্পান”-এ ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য জরুরী ভিত্তিতে ত্রান সহায়তাও দেয়া হবে।

আজ ২৬ মে মঙ্গলবার সকালে বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদ ঘূর্ণিঝড় আম্পান-এ ক্ষতিগ্রস্থ মোংলার পশুর নদীর ভাঙ্গন কবলিত কানাইনগর ও দক্ষিণ কাইনমারি গ্রাম পরিদর্শকালে গণমাধ্যমের কাছে তিনি একথা বলেন।

এসময় তিনি আম্পান-র জ্বলোচ্ছাসে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসী এবং জনপ্রতিনিধিদের সাথে কথা বলেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং ক্ষতিগ্রস্থদের সাথে কথা বলে জানা যায় জয়মনি থেকে বিদ্যারবাহন পর্যন্ত ১০ গ্রামে প্রায় ২০ কিলোমিটার জুড়ে পশুর নদীর ভাঙ্গনে অন্তত ২০ হাজার মানুষ ঘূর্ণিঝড় আম্পানর জ্বলোচ্ছাসে প্লাবিত হয়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন।

পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসকের সাথে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু তাহের হাওলাদার, পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহি প্রকৌশলী নাহিদুজ্জামান, উপজেলা নির্বাহি অফিসার মোঃ রাহাত মান্নান, মোংলা নৌ কন্টিনজেন্ট’র লেঃ কমান্ডার আরিফুল ইসলাম, সহকারি কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ ইকবাল হোসেন, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ নাহিদুজ্জামান, চাঁদপাই ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা মোঃ তারিকুল ইসলাম প্রমূখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি