মঙ্গলবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২১, ০৩:১৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
ঘূর্ণিঝড় জাওয়াদের প্রভাব, হাতিয়াতে বৃষ্টি, নৌ চলাচল বন্ধ ঘোষণা প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসানকে পদত্যাগের নির্দেশ নওগাঁয় ১৬ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক গণ শপথ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি মুলক সভা অনুষ্ঠত কারিকুলামে বাল্যবিবাহ রোধ অন্তর্ভূক্ত করা হবে-প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী তথ্য প্রতিমন্ত্রীর বক্তব্য ব্যক্তিগত, দল বা সরকারের নয়: কাদের প্রতিবেশী দেশগুলোতে অবাধে চলাচলের স্বপ্ন দেখি: পররাষ্ট্রমন্ত্রী সু চির ৪ বছরের কারাদণ্ড শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস ও বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে রানীশংকৈলে প্রস্তুতি সভা সিনহা হত্যা মামলা : ৩৪২ ধারায় আসামিদের বক্তব্য গ্রহণ শুরু ক্যাটরিনার বিয়েতে যেতে লাগবে কোভিড পরীক্ষার রিপোর্ট

সৌদি আরবের রাস্তায় মোটরসাইকেল নিয়ে ছুটবে নারীরা

সৌদি আরবের রাস্তায় এখন নারীদের মোটরগাড়ি চালানো নতুন কিছু নয়। তবে এখনো তেমন মোটরসাইকেল চালাতে দেখা যায় না সৌদি নারীদের।

২০১৮ সালে আরব দেশটির নারীরা গাড়ি চালানোর আনুষ্ঠানিক বৈধতা পায়। ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে কোনো বাধা নেই নারীদের। এর আগে সৌদি আরবই ছিল একমাত্র দেশ যেখানে মেয়েদের গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ ছিল।

আরব নিউজ জানায়, সৌদি রাস্তায় মোটরকারের চালকের আসনে নারীদের দেখা গেলেও বাইক চালাতে তেমন একটা দেখা যায় না তাদের।

দেশটির নারীদের মোটরসাইকেল চালানোয় উৎসাহী করে তুলতে রিয়াদে গড়ে উঠেছে বাইকার্স স্কিল ইনস্টিটিউট। সৌদি আরবে এটিই একমাত্র প্রশিক্ষণ কেন্দ্র, যেখানে নারীদের মোটরসাইকেল চালানো প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

ইনস্টিটিউটটির প্রশিক্ষক ইউক্রেনীয় নাগরিক ইলিনা বুকারিয়েভা বলেন, ‘নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ার পর দেশি-বিদেশি ৪৩ জন নারী এখানে মোটরসাইকেল চালানো শিখছেন। যাদের মধ্যে অন্তত ২০ জন সৌদি নারী। বাকিরা মিসরীয়, লেবানিজ এবং এখানে বাস করা ইউরোপীয় নারীরা।’

মোটরগাড়ি থেকে বাইকে আরও বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন নারীরা। এ ছাড়া নারী বাইকাররা ট্রাফিক আইন মেনে চলাতে পুরুষদের চেয়ে বেশি সচেষ্ট।

মোটরসাইকেলে নারীর স্বাধীনতা ও নিজস্বতা বেশি প্রকাশ পায়। এমন ভাবনা থেকে সৌদি নারীরা মোটরসাইকেল চালানোর দিকে আগ্রহী হচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি