মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
ক্রীড়াবিদরা দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনছে- ধর্মমন্ত্রী উজিরপুরে সৎসঙ্গ ফাউন্ডেশনের সেমিনার অনুষ্ঠিত শিবালয়ে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিবাড়ি খেলা অনুষ্ঠিত লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড ঈদের দিনে সদরঘাটে দুর্ঘটনায় ঝরল ৫ প্রাণ সৌদির সাথে মিল রেখে নোয়াখালীর ৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন নোয়াখালীতে দুর্বৃত্তরা ঘর আগুনে পুড়ে দিয়েছে, ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি সুবর্ণচরে মানব কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে হতদরিদ্র ও অসহায়দের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  ঢাকা আরিচা মহাসড়কের মসুরিয়ায় নামে এক অজ্ঞাত ব্যাক্তি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চাটখিলে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ

কুষ্টিয়ায় জাতির পিতার ভাস্কর্য ভেঙ্গে দেয়ায় নোবিপ্রবি উপাচার্যের প্রতিবাদ

লূৎফুল হায়দার চৌধুরী, নোয়াখালী প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভেঙ্গে দেয়ায় তীব্র প্রতিবাদ, নিন্দা ও গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববদ্যালয়ের (নোবপ্রিবি) মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ দিদার-উল-আলম।

এক প্রতিবাদ লিপিতে তিনি বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্নদ্রষ্টা হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশ নামক স্বাধীন ভূখন্ডের জন্ম হতো না। এ জনপদের আপামর মানুষের বহু প্রতিক্ষীত একটি অসাম্প্রদায়িক, স্বনির্ভর ও সার্বভৌম রাষ্ট্র নির্মাণে বঙ্গবন্ধু তার সারা জীবন অপরিসীম ত্যাগ ও সংগ্রামের মধ্য দিয়ে নিজেকে সমর্পণ করেছেন। আজ তারই সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা তথা উন্নত ও আধুনিক এক বাংলাদেশ যখন আঠারো কোটির মানুষের সামনে দৃশ্যমান; তখনই জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভেঙ্গে দেয় বিপথগামীচক্র। আমরা এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ, নিন্দা ও ক্ষোভ জানাই; পাশাপাশি এর সঙ্গে সংশ্লিষ্ট দোষীদের অবিলম্বে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করছি।

উল্লেখ্য: শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর ২০২০) দিবাগত রাতে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোডে নির্মাণাধীন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যের মুখ ও হাতের অংশে ভাঙচুর করা হয়।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: