বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৪:৫১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
সুবর্ণচরে খামারিদের মাঝে ব্যবসা পরিকল্পনা প্রণয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ দেওয়ানগঞ্জে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে বসত বাড়ীতে হামলার অভিযোগ চৌদ্দগ্রামে নিখোঁজের পরদিন বাড়ির পাশের পুকুরে মিলল শিশুর লাশ নেপাল থেকে কমে বিদ্যুৎ চায় বাংলাদেশ, চলছে দর কষাকষি ‘আর্থ-সামাজিক সূচকে অনেক উন্নত দেশের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ’ রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিস্ফোরণে মৃত বেড়ে ৩ জামালপুরে স্কুলের পাঠদান বন্ধ রেখে ধর্মমন্ত্রীর কর্মী সমাবেশ সুবর্ণচরে গণধর্ষণের ঘটনায় যাবজ্জীবন কারাদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি মো. মিন্টু গ্রেপ্তার গাজীপুরে ৩৯তম আন্ত: জেলা কারাতে প্রতিযোগিতা সম্পন্ন জামালপুরের ফুটবল প্রেমীদের মাতিয়ে গেলেন ব্যারিস্টার সুমন

দুই স্কুলে জিয়ার নাম বদলের আদেশ হাইকোর্টে স্থগিত

নিউজ ডেস্ক :: বগুড়ার গাবতলীতে দুটি বিদ্যালয় থেকে জিয়াউর রহমানের নাম বদলে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের দেয়া আদেশ ৬ মাসের জন্য স্থগিতের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এ বিষয়ে দায়ের করা এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) হাইকোর্টের বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো.খায়েরুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

একই সাথে রুল জারি করেছেন আদালত। রুলে ওই দুই স্কুলের নাম পরিবর্তনের আদেশ কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চাওয়া হয়েছে।

আগামী চার সপ্তাহের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সচিব, শিক্ষা অধিদফতরের মহাপরিচালক, রাজশাহী শিক্ষা বোর্ডের পরিদর্শক, জেলা শিক্ষা অফিসারসহ সংশ্লিষ্টদের এই রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।

স্কুল দুটি হলো শহীদ জিয়াউর রহমান গালর্স হাইস্কুল, পরে নাম করা হয় সুখানপুকুর বন্দর গালর্স হাই স্কুল। আরেকটি হচ্ছে গাবতলী শহীদ জিয়া হাই স্কুল, পরিবর্তন করে নাম করণ করা হয় গাবতলী পূর্বপাড়া হাই স্কুল।

আজ আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন সুপ্রিম কোর্টের সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। তার সঙ্গে ছিলেন মো. আকতার রসুল মুরাদ, নুসরাত ইয়াসমিন, আব্দুল্লাহিল মারুফ ফাহিম, নুরে আলম সিদ্দিকী।

এর আগে গত ১৯ এপ্রিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. কামরুল হাসান স্কুল দুটির নাম পরিবর্তন করতে আদেশ দেন। পরে এ আদেশের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সম্পাদক মো. রুহুল কুদ্দুস কাজল।

রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, ‘২০০০ সালে প্রথম স্কুলটি শহীদ জিয়া হাই স্কুল নামে প্রতিষ্ঠিত হয়। স্কুলের সব কার্যক্রম সেই নামেই পরিচালিত হয়ে আসছিল। কিন্তু চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল কোনো কারণ উল্লেখ ছাড়াই শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে এই নামটি পরিবর্তন করা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওই আদেশটি চ্যালেঞ্জ করে স্কুল কমিটির ম্যানিজিং কমিটির চেয়ারম্যান মো. এনামুল হক নূতন এর পক্ষে রিট দায়ের করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল।’

এদিকে, ১৯৯৬ সালে গাবতলী শহীদ জিয়াউর রহমান গালর্স হাই স্কুল নামে আরেকটি স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয় এবং এই নামেই স্কুলের সব কাজ পরিচালিত হয়ে আসছিল। কিন্তু চলতি বছরের ১৯ এপ্রিল এই নামটি পরিবর্তন করা হয় কোনো কারণ উল্লেখ ছাড়াই। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ওই আদেশটি চ্যালেঞ্জ করে স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোর্শেদ মিল্টনের পক্ষে অপর একটি রিট দায়ের করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। ওই দুই রিটের শুনানি নিয়ে হাইকোর্ট আজ এ আদেশ দেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: