মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০৩:২১ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

হাতিয়ায় মুজিববর্ষে ঘর ও জমির দলিল পেলেন ৫০টি অসহায় পরিবার

হাতিয়া প্রতিনিধি :: মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে গৃহহীনদের জন্য জমি ও ঘর নির্মানের অংশ হিসাবে ৫০টি পরিবারের মাঝে জমির দলিল ও ঘরের কাগজ পত্র হস্তান্তার করা হয়। শনিবার সকালে নোয়াখালী দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ায় উপজেলা পরিষদ হলরুমে ভিডিও কনফারেন্সের এই হস্তান্তার অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

হস্তান্তার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হাতিয়ার সংসদ সদস্য আয়েশা ফেরদাউস, সাবেক সংসদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী, সাবেক সংসদ অধ্যাপক ওয়ালি উল্যাহ, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুব মোর্শেদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: ইমরান হোসেন, হাতিয়া পৌরসভার মেয়র এ কে এম ইউছুফ আলী, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহসভাপতি কেফায়েত উল্যাহ ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মহি উদ্দিন আহম্মেদ প্রমূখ। এছাড়া ৫০টি ঘরের মালিক ও বিভিন্ন পেশার দুই শতাধিক প্রতিনিধি উপস্থিত ছিলেন।

প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের পর পরই তাঁর নির্দেশে হাতিয়ার তমরদ্দি ও চরকিং ইউনিয়নে নির্মিত ৫০টি ঘরের মালিকদের নিকট জমির দলিল ও ঘরের কাগজ পত্র হস্তান্তর করা হয় । পর্যায়ক্রমে উপস্থিত অতিথিরা আনুষ্ঠানিক ভাবে ঘরের মালিকদের নিকট জমির দলিল ও অন্যান্য কাগজ পত্রসহ একটি করে ফাইল হস্তান্তর করেন।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অধিনে বাস্তবায়ন করা এসব ঘরের নির্মান কাজে তদারকি করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়। হাতিয়াতে তমরদ্দি ইউনিয়নের জোড়খালী গ্রামে ৩০টি ও চরকিং ইউনিয়নের বোয়ালিয়া গ্রামে ২০টি পরিবারের জন্য সরকারী জায়গায় আধাপাকা ঘর নির্মান করা হয়। প্রতিটি ঘর নির্মিত হয়েছে দুই শতক জমির ওপর। প্রতিটি ঘর নির্মাণে ব্যয় হয়েছে এক লাখ ৭১ হাজার টাকা। ভূমিহীনদের ঘরের পাশাপাশি দুই শতক জমির মালিকানাও দেয়া হয়েছে রেজিষ্ট্রি করে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: