সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০২:৫৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
ময়নার শেষ কথা” চলচ্চিত্র নিয়ে আসছে ইরা শিকদার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আ’লীগের নেতা কর্মিদের মত বিনিময় সভা সুবর্ণচরে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ সাবেক ইউপি সদস্য মাহে আলমের বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫ বিদেশি ঋণের প্রকল্প দ্রুত শেষ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চৌদ্দগ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছুড়িআঘাতে যুবক নিহত, গ্রেফতার-২ নোয়াখালী সুবর্ণচরে গাভীর সিজারিয়ান অপারেশন

রায়পুর পৌরসভাকে মডেল পৌরসভা রূপান্তর করা হবে

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুরের রায়পুর পৌরসভা মেয়র পদপ্রার্থী গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট বলেছেন, ‘রায়পুর পৌরসভায় বিগত দিনে আশানুরুপ উন্নয়ন হয়নি। এতে পৌরবাসীর মধ্যে দীর্ঘদিনের হতাশা বিরাজ করছে। উন্নয়নের নামে যে বঞ্চনা- সেই হতাশা, বঞ্চনা থেকে মুক্তি দিতে এবং নাগরিক সেবার উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে আমি মেয়র প্রার্থী হয়েছি। নির্বাচনে বিজয়ী হলে রায়পুর পৌরসভাকে দেশের অন্যতম একটি মডেল পৌরসভা হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হবে।’

গত সোমবার (১ ফ্রেবুয়ারী) দুপুরে রায়পুর শহরে এক পথসভায় এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে সকালে ঢাকা থেকে রায়পুরে আসেন রুবেল ভাট। এ উপলক্ষে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা তাকে নৌকার মাঝি হিসেবে বরণ করে নেয়। এ সময় ফুলেল শুভেচ্ছায় শিক্ত হন তিনি। এতে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মামুনুর রশিদ, কেন্দ্রীয় যুবলীগের উপ পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সামছুল ইসলাম পাটওয়ারী, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি বেলায়েত হোসেন বেলাল,জেলা পরিষদের সদস্য মামুন বিন জাকারিয়া, মঞ্জুর হোসেন সুমন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা নজরুল ইসলাম ভুলু, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক তানবীর হায়দার রিংকু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাহমুদুন নবী সোহেল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. কাউছার হোসেন প্রমুখ।

পথসভায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতা গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট দলীয় নেতাকর্মীদের সহযোগীতা কামনা করে বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে পৌরসভার নির্বাচনের জন্য নৌকা প্রতীক দিয়েছেন। এই নৌকার মর্যাদা এবং প্রধানমন্ত্রীর মর্যাদা আমরা রক্ষা করবো। আমি পৌরসভার প্রত্যেকটা লোকের কাছে আবেদন করবো- আমি জেলা-উপজেলা আওয়ামীলীগ, পৌর আওয়ামীলীগসহ অঙ্গ সংগঠনের সকল নেতাকর্মীদের সহযোগীতা ও দোয়া নিয়ে সামনে এগোতে চাই।’

নির্বাচনী ইশতেহারে রুবেল ভাট বলেন, ‘আমি ছাত্রজীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ছিলাম। শিক্ষাজীবন শেষ করে কর্মজীবনে সুদুর আমেরিকাতে পাড়ি জমাই। রায়পুরের মাটি ও মানুষের সাথে আমার প্রাণের বন্ধন রয়েছে। তাই দূরে থেকেও এ এলাকার মানুষের খোঁজ-খবর নিয়ে তাদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি। সামাজিক কর্মকান্ডের সক্রিয় ভূমিকা পালনের চেষ্টা করেছি। করোনা মহামারিতে নেতা-কর্মী ও জনগণের পাশে ছিলাম। নিজ রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীদেরও বিপদে সহযোগীতা করেছি। একজন মুসলমান হিসেবেও ধর্মীয় কাজেও সহযোগীতা করেছি। আমার স্বপ্ন রায়পুর পৌরসভার সাধারণ মানুষের দুঃসময়ে পাশে থাকা। আগামী নির্বাচনে পৌরবাসীর একজন নগণ্য সেবক হিসেবে বিলিয়ে দেওয়া।’

তিনি বলেন, ‘আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি- অর্থের অভাবে মেধাবীরা শিক্ষাজীবন থেকে ঝরে পড়ছে, যৌতুকের জন্য মেয়ের বিয়ে হচ্ছে না, চিকিৎসার অভাবে মানুষ ধুকে ধুকে মরছে। এসব সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতেই আমি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হচ্ছি।’ বলেন- ‘আমি পৌরবাসীর অভিবাবক নই- সেবক হতে চাই।’

পৌরবাসীর দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করে তিনি বলেন, ‘নির্বাচিত হলে পৌর নাগরিকদের সাথে পরামর্শক্রমে ট্রাক্স নির্ধারণ করা হবে, যাতে সকল পৌর নাগরিক সহজে ট্রাক্স প্রদান করতে সক্ষম হয়। একটি কার্যকরী বর্জ ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে পৌর শহরকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, প্রস্তাবিত পৌর শিশু পার্কের কাজ দ্রুততম সময়ের মধ্যে সমাপ্ত করা, নাগরিক নিরাপত্তায় প্রাথমিকভাবে পুরো বাজারকে সিসি ক্যামেরার আওতায় আনা হবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে মাদক নির্মূল কমিটি গঠন ও প্রতিকারের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। টেন্ডার কার্যক্রমে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা হবে।

পৌর এলাকায় অবস্থিত বিভিন্ন ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নে কার্যক্ররী পরিকল্পনা গ্রহণ করা হবে। রাস্তাঘাত নির্মাণ ও পুন মেরামত এবং বাজারের যানজট নিরসন এবং হকার মুক্ত রাখতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রায়পুরের ঐতিহ্যবাসী ডাকাতিয়া নদীর পৌরসভা অংশে অবৈধ দখল এবং দুষণমুক্ত করে নিরাপদ পানি প্রবাহ এবং সরবরাহ নিশ্চিত করা হবে।’

উল্লেখ্য, গিয়াস উদ্দিন রুবেল ভাট জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যায়নরত অবস্থায় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক ছিলেন। কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের (লিয়াকত-বাবু কমিটি) সাবেক কার্যকরী সদস্য, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক উপ-কমিটির সাবেক সদস্য ছিলেন। এর আগে রায়পুর পৌর ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে তার ছাত্রলীগের রাজনীতির শুরু। রায়পুরের ঐতিহ্যবাহী ভাট পরিবারের সন্তান তিনি।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: