রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:২৬ অপরাহ্ন

জয়পুরহাটে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম সম্পর্কে জেলা প্রশাসনের আলোচনা সভা

(জয়পুরহাট) প্রতিনিধি :: জয়পুরহাট জেলা প্রশাসনের আয়োজনে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিনেশন কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিতকণ সভা অনিুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে জেলা প্রশাসনের সম্মেলন কক্ষে অবহিতকণ সভায় জানানো হয় জয়পুরহাট জেলায় গত ২৯ জানুয়ারি রাত ৪ টায় ভ্যাকসিন রিসিভিং কমিটি কতৃক ২ কার্টুন অর্থাৎ ২৪০০ ভায়াল ভ্যাকসিন গ্রহণ করা ও তা জেলা ইপিআই ষ্টোরে নির্দিষ্ট তাপমাত্রায় রাখা হয়েছে। প্রাপ্ত ভ্যাকসিন দিয়ে ২৪ হাজার জনগণকে টিকা দেয়া যাবে। টিকা প্রদানের ক্ষেত্রে সরকার কতৃক প্রণীত অগ্রাধীকার তালিকা অনুসরণ করা হবে। ভ্যাকসিনের সংনক্ষণ তাপমাত্রাঃ +২ ডিগ্রি থেকে +৮ ডিগ্রি। যার প্রস্তুতকারক সেরাম ইনস্টিটিউট ইন্ডিয়া।

জেলা প্রশাসক মোঃ শফিকুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, আগামী ৩ ও ৪ ফেব্রুয়ারি সিভিল সার্জন কার্যলয়ে ভ্যাকসিন প্রদানের জন্য স্যাকমো ও এসএসএন-দের প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হবে এবং ইতিমধ্যে ভ্যাকসিনসমূহ জেলা হাসপাতালসহ প্রত্যেক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করা হয়েছে। ভ্যাকসিন গ্রহনের জন্য সকলকে সুরক্ষা এ্যাপের মাধ্যমে এনআইডি নম্বর ব্যবহার করে রেজিষ্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, ভ্যাকসিন কার্যক্রমে কেউ যাতে ব্যাঘাত সৃষ্টি না করে সেদিকে সকলকে নজর রাখতে হবে।

অবহিতকণ সভায় সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ ওয়াজেদ আলী বলেন, ভ্যাকসিন প্রদানের সময় বাড়তি চাপ সামলানোর জন্য কেন্দ্রসমূহে সেচ্ছাসেবী প্রয়োজন হবে বিধায় সেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে রেড ক্রিসেন্ট, ব্রাক ও জাকস ফাউন্ডেশনের সদস্যগণকে অন্তরভূক্ত করা হবে। করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন প্রদান সংক্রান্ত সার্বিক কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার জন্য গত ৩০ জানুয়ারি বিকাল ৩ টায় করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন প্রদান সংক্রান্ত জেলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এছাড়াও সন্মানিত সচিব, স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়, জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন।

এ সময়ে আরো বক্তব্য রাখেন জয়পুরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস, এম সোলায়মান আলী সহ জেলা প্রশাসনের বিভন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি