শুক্রবার, ২৫ Jun ২০২১, ০৪:২১ অপরাহ্ন

শিরোনাম
লকডাউন শেষে এখন শাটডাউন খেলা শুরু করছে সরকার : মান্না ভূমধ্যসাগরে ভাসমান ২৬৪ বাংলাদেশি উদ্ধার হাতীবান্ধায় মধ্যরাতে গোয়াল ঘরে আগুন, গরু বাঁচাতে গিয়ে ২জন অগ্নিদগ্ধ গ্রাম হচ্ছে শহর প্রাণভোমরা ডিজিটাল সেন্টার – পরীক্ষিৎ চৌধূরী সুইজারল্যান্ডে এমপি হয়ে ইতিহাস গড়লেন বাংলাদেশি নারী জেনারেল র‌্যাংক ব্যাজ পরানো হলো নতুন সেনাপ্রধানকে ‘ওভারনাইট বান্দরবান পাঠিয়ে দেব’ বিজ্ঞাপন বন্ধের নির্দেশ করোনা চিকিৎসার ব্যবস্থাপনা ও প্রস্তুতি জানতে ঢাকা মেডিকেলে জাসদ নেতৃবৃন্দ ব্যাটারি চালিত রিক্সা-ভ্যান বন্ধের প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জে মানববন্ধন যোগচর্চার উৎপত্তি ভারত না নেপাল

শিবালয়ে মৎস্য চাষ বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

মানিকগঞ্জ থেকে আকাশ চৌধুরী :: শিবালয়ে কার্প মিশ্র চাষ, শিং ও পাবদা চাষ বিষয়ক ২ দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২০২০-২০২১ অর্থ বছরে ইউনিয়ন পর্যায়ে মৎস্য চাষ প্রযুক্তি সেবা সম্প্রসারণ প্রকল্প ২য় পর্যায় (২য় সংশোধিত) প্রকল্পের আওতায় আরডি এফএফদের ১ম ধাপের প্রশিক্ষণ ৩১ মে সমাপ্ত হয়েছে। শিবালয় উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নের মোট ৭২জন আরডি ও এফ এফদের প্রশিক্ষণ প্রধান করা হয়। শিবালয় উপজেলা হল রুমে আয়োজিত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন প্রকল্প পরিচালক মো: হাবিবুর রহমান।

এ সময় মানিকগঞ্জ জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম, শিবালয় সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল আলম, অধ্যক্ষ মোহাম্মদ ইউনুস আলী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। প্রধান অতিথি প্রকল্প পরিচালক মো. হাবিবুর রহমান বলেন, মাছ চাষের জন্য জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিষয়গুলো মৎস্য অফিসের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মৎস্য চাষীরা জানতে পারবেন।

২০১৫ সালে শুরু হয়ে এ প্রকল্প ২য় পর্যায়ে চলমান রয়েছে। দেশের ৬১টি জেলা ৪ হাজান ৩শ’ ইউনিয়নে বিনামূল্যে বিভিন্ন জাতের মাছের পোনা, খাবার প্রদান ও পরবর্তী দুই বছর মনিটরিং করার কার্যক্রম অব্যবহত রয়েছে। বর্তমানে শুধু মাত্র আরডি অর্থাৎ ফলাফল প্রদর্শনকারীদের সুবিধা দেয়া হলেও পরবর্তী এফ এফ অর্থাৎ বন্ধু চাষীদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা প্রদান করার আশা দেন তিনি। তিনি আরও বলেন, মাছ হচ্ছে নির্দোষ প্রোটিন।

বর্তমান করোনাকালীন সময়ে বেশি বেশি মাছ খেয়ে শরীরে রোগ প্রতিরোধ করার ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে হবে। মানিকগঞ্জ জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, মাছ চাষের জন্য তিনটি বিষয় খুবই গুরুত্বপূর্ণ যেমন প্রস্তুতি, মানসম্মত পোনা ও খাদ্য ব্যবস্থাপনা। জেলা উপজেলা মৎস্য অফিসের যোগাযোগ করে মাছ চাষের বিষয়ে সঠিক দিক নির্দেশনা পাওয়া যাবে। মাছ চাষে ব্যক্তি লাভের সাথে সাথে নতুন নতুন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়। অন্যান্য কৃষি চাষাবাদের চেয়ে মাছ চাষ অধিক লাভজনক। মানিকগঞ্জ জেলা মাছ চাষের জন্য খুবই উপযোগী।

এখানে রেনু থেকে পোনা তৈরি নার্সারী তৈরি করা খুবই প্রয়োজন। শিবালয় সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ রফিকুল আলম বলেন, চলমান লোকডউনের মধ্যেও সরকারী নির্দেশনায় এ উপজেলার মাছ চাষীদের ৭২ জন চাষীকে প্রশিক্ষণ ও ১২জন আরডিকে বিনামূল্যে মাছের পোনা বিতরণ করা হয়েছে। মাছ চাষে লাভ ও লোকসানের তথ্য মৎস্য অফিসে জানানোর চাষীদেরকে আহ্বান জানান। প্রশিক্ষণ শেষে ভাকলা গ্রামের আরিডির পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি