সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০৬:২৬ অপরাহ্ন

নিজের হাতে তৈরি ৪ হাজার মাস্ক বিতরণ করলেন এক নারী

নিউজ ডেস্ক : করোনাভাইরাস আতঙ্কে ভুগছে সারাদেশ। ধীরে ধীরে বাড়ছে করোনা আক্রান্ত রোগী ও মৃতের সংখ্যা। তারপরও কর্মের তাগিদে ঘর থেকে বের হতে হচ্ছে অনেককে। স্বাস্থ্য বিধিও মানছেন না কেউ কেউ। এমন পরিস্থিতিতে বগুড়ার ধুনট উপজেলায় এলাকাবাসীর মাঝে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন মোর্শেদা হক মুকুট মনি নামের এক নারী।

তিনি এলাকাবাসীর মাঝে করোনা প্রতিরোধে জনসচেতনতা সৃষ্টিতে লিফলেটসহ নিজের হাতে তৈরি ৪ হাজার মাস্ক বিতরণ করেছেন। এছাড়াও দরিদ্র, প্রতিবন্ধী ও অস্বচ্ছল পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তাও করে যাচ্ছেন তিনি।

মোর্শেদা হক মুকুট মনি গাইবান্ধা জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বাসিন্দা। তিনি ২০১৪ সাল থেকে বেসরকারি সংস্থা টিএমএসএস’র বগুড়ার ধুনট উপজেলা শাখার সহকারী ব্যবস্থাপক পদে কর্মরত আছেন। কর্মের তাগিদে মকুট মনি ধুনট শহরে ভাড়া বাসায় বসবাস করেন।
টিএমএসএস সংস্থার পক্ষে তিনি এলাকায় তৃতীয় লিঙ্গ (হিজড়া), প্রতিবন্ধী, বেকার ও বয়সন্ধীকালীন কিশোরীদের আর্থ সামাজিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। তবে দেশের এই ক্রান্তিলগ্নেও থেমে নেই তার পথচলা। মানবিকতার চেতনায় সামাজিক দায়িত্ববোধ থেকে করোনা মহামারিতেও মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি।

ব্যক্তিগত অর্থায়নে এখন পর্যন্ত তিনি ধুনট উপজেলার ১০টি ইউনিয়নের দরিদ্র কর্মজীবি মানুষের মাঝে নিজের হাতে তৈরী ৪ হাজার মাস্ক বিতরণ বিতরণ করেছেন। এছাড়াও মুকুট মনি, ধুনট উপজেলা প্রশাসন, ধুনট থানা পুলিশ, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের মাঝেও নিজের হাতে তৈরী মাস্ক বিতরণ করেন।

এনজিও কর্মী মোর্শেদা হক মকুট মনি বলেন, এলাকার অনেক দরিদ্র মানুষের মাস্ক কেনার সামর্থ্য নেই। ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও জীবিকার তাগিদে তাদের বাইরে বের হতে হচ্ছে। আমি এসব মানুষের মাঝে মাস্ক ও খাদ্য সামগ্রী সহ অন্যান্য সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ করছি। দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে মানুষ হিসেবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমাদের কর্তব্য। তাই আমার যতটুকু সাধ্য আছে সেই অনুযায়ী মানুষের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি