বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১১:০৫ অপরাহ্ন

শিরোনাম
গাজীপুর প্রেসক্লাবে মাসুদুল হক সভাপতি, মাহতাব সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত রেল লাইনে পাথর নেই, মারাত্নক ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে ট্রেন ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিহ্মোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় দেশে পরিবেশ বান্ধব কৃষি ও শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের আহবান বোপমা সভাপতির হাতীবান্ধায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ মামলার মূল আসামী শাহিন গ্রেফতার সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বরিশালে আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল খেলাপি বৃদ্ধির শীর্ষে ২০ ব্যাংক বিমানবন্দরে ভক্তদের উদ্দেশ্যে যা বললেন শাকিব খান বরিশাল শেবাচিমে অধ্যক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ তেলের দাম বাড়ায় ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছেন: বাণিজ্যমন্ত্রী

লক্ষ্মীপুরে পূর্ব জামিরতলী বিদ্যালয়ের যাতায়াতের রাস্তাটি বিলুপ্তির পথে

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার ১৩ নং দিঘলী ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে অবস্থিত পূর্ব জামিরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাতায়াতের রাস্তাটি বিলুপ্তির পথে দেখা যেন কেউ নাই।

স্থানীয় সূত্র জানাযায় বিদ্যালয়টি সুনামের সাথে পরিচালিত হয়ে আসছে দীর্ঘদিন থেকে। কিন্তু দুঃখের বিষয় বিদ্যালয়ের রাস্তাটি পূর্ব পাশে খাল, পশ্চিম পাশে দিঘি থাকায় বর্ষার সময় রাস্তার সম্পূর্ণ ভেঙে ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষকদের যাতায়াতের অনুপযোগী হয়ে পড়ে।

পূর্ব জামিরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি মিজানুর রহমান বলেন,ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও মেম্বারকে অনেক বার বলার পরেও তার কর্নপাত করেনি। তড়িঘড়ি করে এ রাস্তাটি না ধরলে হয়তোবা এই বিদ্যালয়ের আশা ছেড়েই দিতে হবে। কারণ যে হারে রাস্তা ভেঙ্গে প্রায় বিলুপ্তির পথে এভাবে ভাঙতে ভাঙতে বর্তমানে যে শুরু রাস্তাটা আছে সেটাও থাকবে না।

প্রতিষ্ঠান প্রধান শিক্ষিকা কামরুন নাহার মুঠোফোনে গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, পূর্ব জামিরতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি একমাত্র রাস্তাটি হল এটি, যা বর্তমানে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এ রাস্তাটি অতি দ্রুত দুই পাশের ঘাটোয়াল দিয়ে রাস্তাটি নির্মাণ না করলে একসময় দেখা যাবে বিদ্যালয় কোন ছাত্র-ছাত্রী পড়ালেখা করতে আসবে না।

এর আগে অনেক ছাত্র-ছাত্রী এখানে পড়ে গিয়ে আহত হয়েছেন। বিদ্যালয়ের রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে ছাত্র ছাত্রীরা অন্যান্য বিদ্যালয় চলে গেছে। বর্তমানে মাত্র ১৩০ জন ছাত্র-ছাত্রী প্রতিষ্ঠান পড়ালেখা করেন।

প্রতিষ্ঠানের বিদ্যুৎসাহী সদস্য ইমরান হোসেন গণমাধ্যমকর্মীদের বলেন, একপাশে খাল থাকা অন্য পাশে দিঘি থাকায় মাঝখানে রাস্তাটি চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। আমরা সকলেই রাস্তাটি নিয়ে খুব চিন্তায় আছি। অত্র বিদ্যালয়ের একমাত্র রাস্তা এটি, বিকল্প কোন রাস্তা নাই যে বিদ্যালয়টিতে যাওয়ার। এই রাস্তাটি নিয়ে দীর্ঘদিন থেকে আমরা সমস্যায় ভুগতেছি। ইউপি সদস্য সাইফুল ইসলাম স্বপন বলেন

প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা গণমাধ্যমের মধ্য দিয়েই প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি