শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:১৯ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
হাতিয়ার উন্নয়নে সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ কর্মসূচিকে কাজে লাগানো হবে – মোহাম্মদ আলী এমপি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ৩৯ বছর পর জমি ফিরে পেলেন যদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা পরিবার শিবালয়ে ১৫তম  মাই টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত  ক্রীড়াবিদরা দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনছে- ধর্মমন্ত্রী উজিরপুরে সৎসঙ্গ ফাউন্ডেশনের সেমিনার অনুষ্ঠিত শিবালয়ে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিবাড়ি খেলা অনুষ্ঠিত লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড ঈদের দিনে সদরঘাটে দুর্ঘটনায় ঝরল ৫ প্রাণ সৌদির সাথে মিল রেখে নোয়াখালীর ৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন নোয়াখালীতে দুর্বৃত্তরা ঘর আগুনে পুড়ে দিয়েছে, ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

পরিবেশ অধিদপ্তরে পাঁচ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ

পরিবেশ অধিদপ্তরের কাজে গতিশীলতা আনতে পাঁচজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। এক মাসের মধ্যে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিবকে তাদের নিয়োগ ও পদায়নের বিষয়টি বাস্তবায়ন করতে বলা হয়েছে।

ঢাকার বায়ু মান নিয়ে করা এক মামলায় রবিবার বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন। এর আগে এই মামলায় হাইকোর্টের নির্দেশনা বাস্তবায়নের অগ্রগতি বিষয়ক শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

পরিবেশ ও মানবাধিকার সংগঠন হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশে (এইচআরপিবি) মামলাটি দায়ের করে।

ঢাকার বায়ুমান উন্নয়নে পরিবেশ অধিদপ্তর কি ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে এবং অধিদপ্তরের জনবল নিয়োগের বিষয়ে ব্যাখ্যা দিতে গত ১৩ জানুয়ারি এক আদেশে প্রতিষ্ঠানটির মহাপরিচালকে তলব করেছিল হাইকোর্ট। এদিন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ কে এম রফিক আহাম্মদ আদালতে হাজির হন।

আবেদনের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন আইনজীবী মনজিল মোরসেদ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ বি এম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার। পরিবেশ অধিদপ্তরের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী আমাতুল কবির।

অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আদালতকে জানান, ২০১৬ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত বায়ুর মান আগের চেয়ে আরও বেশি খারাপ হয়েছে। পরিবেশ দূষণরোধে অধিদপ্তর দ্রুত ও কার্যকরী ব্যবস্থার উদ্যোগ নিলেও লোকবলের অভাবে সেটি সম্ভব হয় না।

শুনানিতে মনজিল মোরসেদ বলেন, অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা যখন মাঠ পর্যায়ে কাজ করেন তখন দূষণে দায়ীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিতে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট প্রয়োজন হয়। কিন্তু অধিদপ্তরের অর্গানোগ্রামে ৮ জন ম্যাজিস্ট্রেট থাকার কথা থাকলেও আছেন মাত্র তিনজন। এমন পরিস্থিতিতে আরও ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের আরজি জানান তিনি।

তিনি বলেন, শুনানি নিয়ে আদালত পাঁচজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগ দিতে নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে আদেশের অগ্রগতি জানিয়ে আগামী ১০ মার্চ প্রতিবেদন দিতে আদেশ দেন আদালত।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: