বৃহস্পতিবার, ২০ Jun ২০২৪, ১২:৩২ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

‘পুলিশকে তথ্য দিতে জনগণকে আরও উদ্বুদ্ধ করতে হবে’

নিউজ ডেস্ক :: বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. ছাদেকুল আরেফিন বলেছেন, অপরাধ দমনে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে জনগণকে আরও উদ্বুদ্ধ করতে হবে।

শনিবার কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তেব্যে এ কথা বলেন তিনি। এর আগে, বরিশালের অশ্বিনী কুমার হল প্রাঙ্গণে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে কমিউনিটি পুলিশিং ডে’র উদ্বোধন করা হয়।

তিনি বলেন, ছোটবেলায় দেখতাম পুলিশকে কেবল গ্রামের চৌকিদার, দফাদার ও জনপ্রতিনিধিরা সাহায্য করতো, তথ্য দিয়ে অপরাধ দমনে ভূমিকা রাখতো। কিন্তু বর্তমানে আধুনিকায়ন হওয়ায় সমাজের সব শ্রেণির মানুষের সঙ্গে পুলিশের সরাসরি যোগাযোগ রয়েছে। এতে করে যেকোন ঘটনার রহস্য উন্মোচন এবং বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি সহজেই নিয়ন্ত্রনে আনতে পারছে পুলিশ। এসব সম্ভব হয়েছে সাধারণের সঙ্গে পুলিশের দূরত্ব কমিয়ে এনে জনতার সমতায় নিয়ে আসার জন্য।

পুলিশের এই সফলতা শুধু একার নয়; এতে জনসাধারণও অংশীদার জানিয়ে ছাদেকুল আরেফিন বলেন, জনগণকে আরও উদ্বুদ্ধ করতে হবে পুলিশকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করতে। তথ্য ছাড়া যেমন বর্তমান বিশ্ব অন্ধ তেমনি তথ্য ছাড়া পুলিশ বাহিনীকেও কার্যত কর্মকাণ্ডহীন হয়ে থাকতে হয়।

তিনি বলেন, পুলিশ ও জনগণ উভয়ের পরিপূরক হতে হবে। তবেই দেশ আরও এগিয়ে যাবে।

বরিশাল মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার মো. শাহাবুদ্দিন খান এই অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন। সভাপতির বক্তৃতায় তিনি বলেন, নগরীর আইন-শৃঙ্খলা রক্ষায় ও সামাজিক সমস্যা সমাধানে জনগণের স্বেচ্ছামূলক অংশগ্রহণ নিশ্চিত করা গেলে কমিউনিটি পুলিশিং স্বার্থক হবে।

শাহাবুদ্দিন খান বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় কমিউনিটি পুলিশিংয়ের বিকল্প নেই। এটা আধুনিক পুলিশিং, গণতান্ত্রিক পুলিশিং এবং জনবান্ধব পুলিশিং। জনবান্ধব করাই আধুনিক পুলিশিংয়ের মূলমন্ত্র। এটি অপরাধ দমনে অনেক সহায়ক। এর মাধ্যমেই পুলিশের প্রতি আস্থা বৃদ্ধি পেতে পারে এবং একটি জনবান্ধব পুলিশ বাহিনী তৈরি করতে পারে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন-বরিশাল র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ানের (র‌্যাব-৮) অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি আতিকা ইসলাম, অতিরিক্ত কমিশনার প্রলয় চিসিম, বরিশাল মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট একেএম জাহাঙ্গীর হোসাইন, বরিশাল আইনজীবী সমিতি সভাপতি অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন, বরিশাল প্রেস ক্লাবের সভাপতি অ্যাডভোকেট মানবেন্দ্র ব্যাটবল প্রমুখ।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: