শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ০৩:৪১ অপরাহ্ন

শিরোনাম
ময়নার শেষ কথা” চলচ্চিত্র নিয়ে আসছে ইরা শিকদার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আ’লীগের নেতা কর্মিদের মত বিনিময় সভা সুবর্ণচরে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ সাবেক ইউপি সদস্য মাহে আলমের বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫ বিদেশি ঋণের প্রকল্প দ্রুত শেষ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চৌদ্দগ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছুড়িআঘাতে যুবক নিহত, গ্রেফতার-২ নোয়াখালী সুবর্ণচরে গাভীর সিজারিয়ান অপারেশন

সিলেটে সিরিজ বোমা হামলায় জেএমবি নেতার আমৃত্যু কারাদণ্ড

নিউজ ডেস্ক :: সিলেটের কদমতলী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে সিরিজ বোমা হামলার মামলায় জেএমবি নেতা আব্দুল আজিজকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। রোববার (১৩ ডিসেম্বর) অতিরিক্ত মহানগর দায়রা আদালতের বিচারক মোমিনুন্নেসা এ রায় ঘোষণা করেন।

জানা যায়, ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট জেএমবির জঙ্গিরা সারাদেশের মতো সিলেটে ১৩টি, সুনামগঞ্জে পাঁচটি, হবিগঞ্জে পাঁচটি ও মৌলভীবাজারে পাঁচটিসহ মোট ২৯টি স্থানে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায়। বোমা বিস্ফোরণের শব্দে কেঁপে ওঠে সিলেটের আদালতপাড়া, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়সহ জনগুরুত্বপূর্ণ এলাকা। সেদিন সকাল ১১টা ১৫ মিনিটে সিলেট নগরীর আদালতপাড়া, জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সিঁড়ির নিচ, শাহী ঈদগাহ, নয়াসড়ক, কদমতলী বাস টার্মিনাল, লামাবাজারের একটি নার্সারিসহ ১৩টি এলাকায় একসঙ্গে ও একই সময়ে বোমার বিস্ফোরণ ঘটায় জঙ্গিরা।

এসব স্থানে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লেও ওইদিনের বোমা হামলায় সিলেটে কেউ মারা যাননি। তবে এ বোমা হামলায় সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালের বিচারক বিপ্লব গোস্বামী এবং তার গাড়িচালক, বিচারপ্রার্থী জনগণ, নার্সারি মালিক, পথচারীসহ ১৫ জন আহত হন।

পরবর্তীতে প্রতিটি বোমা হামলার ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতায় বিস্ফোরক আইনে পৃথক মামলা করে পুলিশ। সিলেট বিভাগের চার জেলায় দায়ের করা হয় ২৯টি মামলা। এর মধ্যে বেশির ভাগ মামলারই বিচারকাজ শেষ হয়নি। অধিকাংশ মামলাই বর্তমানে সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে রয়েছে। কিছু মামলা আদালতে এখনও বিচারাধীন রয়েছে। তা ছাড়া সুনামগঞ্জের একটি মামলায় দুজন জঙ্গিকে ১০ বছর করে কারাদণ্ড দেওয়া হয়।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: