শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১২:০৬ অপরাহ্ন

তামিমের যে আবদার মেটালেন কোহলি

 নিউজ ডেস্ক : প্রায় প্রতিদিনই নতুন অতিথি নিয়ে হাজির হন তারকা ওপেনার তামিম ইকবাল। গতকাল সোমবার তামিম সবচেয়ে বড় চমক দেখান, লাইভে নিয়ে আসেন এই সময়ের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার বিরাট কোহলিকে। দুজনের আলোচনায় হাসি-ঠাট্টার চেয়ে ক্রিকেটীয় বিষয় বেশি উঠে এসেছে।

কোহলির অনুশীলনের প্রক্রিয়া নিয়ে আগ্রহ থাকে সব ক্রিকেটারেরই। তামিমও সেই গল্প শোনার জন্য আবদার করলেন কোহলির কাছে। ভারতীয় অধিনায়কও রেখেছেন বাংলাদেশ অধিনায়কের আবদার। শুনিয়েছেন নিজের প্রস্তুত থাকার গল্প।

কোহলি বলেন, ‘প্রস্তুতি আসলে পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করে। কেবল ফিটনেসের ধরন ও খাদ্যাভ্যাস আমার একইরকম থাকে। এই দুটি ব্যাপারে ধারাবাহিকতা থাকতে হবে। কারণ, শরীর যদি ভালো অবস্থায় থাকে, মানসিকতা যদি ভালো থাকে, শরীরে জড়তা না থাকে, তাহলে প্রতিবারই মাঠে সেরা অবস্থায় নামা যায়।’

ভারতীয় অধিনায়ক জানালেন আত্মবিশ্বাসে ঘাটতি থাকলে আরো বেশি ব্যাট করতে ইচ্ছা করে ভারতীয় তারকার, ‘ব্যাটিয়ের ক্ষেত্রে যখন আত্মবিশ্বাসের ঘাটতি থাকে, তখন আরও বেশি ব্যাটিং করতে ইচ্ছে করে। যতক্ষণ না নিখুঁত ব্যাটিং সেশন হয়, ততক্ষণ পর্যন্ত ব্যাটিং করে যেতেই ইচ্ছে হয়। ওইটুকু হয়ে যাওয়ার পর নেটে ৭-৮ মিনিটের বেশি কাটাই না। মিনিট দশেক থ্রো ডাউনে ব্যাটিং করি। এরপর চলে যাই।’

কোহলি আরো বলেন, ‘ভালো ব্যাটিং করতে থাকলে তা বেশি করলেও সমস্যা। কারণ তখন আত্মবিশ্বাস বেশি হয়ে যায়, সব শটই ব্যাটে লাগতে থাকে, মনে হয় যে সব শটই খেলতে পারব। তখন উল্টো হতে থাকে। বডি শেইপ খারাপ হয়, কিছু শট লাগে না, হতাশা আসতে থাকে, এতক্ষণ ধরে যেভাবে নিজেকে গড়ে তুলেছিলাম, সব এক মুহূর্তেই শেষ হয়ে যায়। ব্যাটসম্যানদের তাই সেই সচেতনতা থাকা জরুরি।’

মাঠের বাইরের প্রস্তুতিও খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন ভারতীয় অধিনায়ক, ‘আমার মনে হয়, মানসিক প্রস্তুতির জন্য মাঠের বাইরের ব্যাপারও খুব গুরুত্বপূর্ণ। সফরে গেলে একটু হাঁটতে যাওয়া, ঘুরে-বেড়ানো এসব দরকার। সবসময়ই একই ঘোরে থাকা যাবে না।’

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি