রবিবার, ১৬ Jun ২০২৪, ০৩:০৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

রাগের জন্যই সংক্ষিপ্ত হয়েছে গম্ভীরের কেরিয়ার

ভারতীয় ক্রিকেট দলে দুর্দান্ত ওপেনার ছিল গৌতম গম্ভীর। কিন্তু নিজের রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারায় সংক্ষিপ্ত হয়েছে তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার। এমনটাই মনে করছেন ভারতের সাবেক নির্বাচক দিলীপ ভেঙ্গ সরকার।

ভারতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক ও সাবেক প্রধান নির্বাচক দিলীপ ভেঙ্গ সরকারের মতে, “দুর্দান্ত প্রতিভা ছিল গম্ভীরের। কিন্তু নিজের রাগ ও আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করতে পারেনি। ওর যা দক্ষতা ছিল তাতে আরও অনেকদিন দেশের হয়ে খেলতে পারত। আবেগ নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারার জন্যই সংক্ষিপ্ত হয়েছে গম্ভীরের আন্তর্জাতিক কেরিয়ার।”

‘যত সাফল্যই পান না কেন, ক্রিকেট কেরিয়ার আরও বর্ণময় হতে পারত গৌতম গম্ভীরের’ এমনই মনে করছেন ভারতের সাবেক এই ক্রিকেটার।

মহেন্দ্র সিংহ ধোনির নেতৃত্বে ২০০৭ সালে টি-টোয়েন্টি ও ২০১১ সালে একদিনের বিশ্বকাপ জিতেছিল ভারত। দু’বারই ফাইনালে ব্যাট হাতে দলকে ভরসা দিয়েছিলেন বাঁ-হাতি গৌতম গম্ভীর। দুই ফাইনালেই দলের পক্ষে সর্বাধিক রান করেছিলেন গম্ভীর। চ্যাম্পিয়ন হওয়ার ভিত গড়ে দিয়েছিল এই গম্ভীরই। অথচ, খুব লম্বা কেরিয়ার নয় গম্ভীরের। ৫৮ টেস্টে ৪১.৯৫ গড়ে ৪,১৫৪ রান করেছেন তিনি। টেস্টে আইসিসির তালিকায় সেরা ব্যাটসম্যানও হয়েছিলেন একবার।

২০১৬ সালে শেষবার টেস্টের আসরে দেখা গিয়েছিল তাঁকে। টি-টোয়েন্টি ও একদিনের ফরম্যাটে তাঁর শেষ আন্তর্জাতিক ম্যাচ অবশ্য আরও আগে, যথাক্রমে ২০১২ ও ২০১৩ সালে।

সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন কিছুদিন আগেই। তারপর পদ্মশ্রী সম্মানে ভূষিত হয়েছেন তিনি। এখন রাজনীতিতে যোগ দিয়েছেন ভারতীয় দলের সাবেক তারকা ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: