বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:৫৬ অপরাহ্ন

শিরোনাম
গাজীপুর প্রেসক্লাবে মাসুদুল হক সভাপতি, মাহতাব সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত রেল লাইনে পাথর নেই, মারাত্নক ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে ট্রেন ২০০৫ সালের ১৭ আগস্ট সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বিহ্মোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয় দেশে পরিবেশ বান্ধব কৃষি ও শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের আহবান বোপমা সভাপতির হাতীবান্ধায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণ মামলার মূল আসামী শাহিন গ্রেফতার সিরিজ বোমা হামলার প্রতিবাদে বরিশালে আ.লীগের বিক্ষোভ মিছিল খেলাপি বৃদ্ধির শীর্ষে ২০ ব্যাংক বিমানবন্দরে ভক্তদের উদ্দেশ্যে যা বললেন শাকিব খান বরিশাল শেবাচিমে অধ্যক্ষের কার্যালয় ঘেরাও করে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ তেলের দাম বাড়ায় ব্যবসায়ীরা সুযোগ নিচ্ছেন: বাণিজ্যমন্ত্রী

সেন্টমার্টিনে বাড়ছে পর্যটকদের ভিড়

দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন। এখানকার সাগরের তলদেশে রয়েছে মনোমুগ্ধকর বিচিত্র প্রাণী ও হরেক রকম জলজ প্রাণ, নানান আকারের পাথরের স্তূপ, দুর্লভ প্রবাল, দৃষ্টি নন্দন পাথরের ফুল। প্রাকৃতিক সম্পদের মধ্যে রয়েছে প্রচুর চুনাপাথরসহ নানা প্রকার পাথর, সামুদ্রিক শৈবাল, ঝিনুক, মুক্তা, সিলিকন, জেলি ফিশ, হরেক রকম সামুদ্রিক মাছ, কচ্ছপ।

নভেম্বর থেকে ফেব্রুয়ারি এই চার মাস সেন্টমার্টিন দ্বীপে চমৎকার আবহাওয়া বিরাজ করায় প্রচুর পর্যটকদের আনাগোনা বেশি থাকে। ইতিমধ্যে পর্যটকদের ভিড়ে সেখানকার হোটেল-মোটেলগুলো মুখরিত হয়ে উঠেছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে পর্যটকদের জন্য নিরাপত্তা ব্যবস্থাও জোরদার করা হয়েছে।

দেশের সর্বদক্ষিণের জেলা কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার দক্ষিণাংশের মূল ভূখণ্ড ‘বদর মোকাম’ থেকে ১৪কি:মি: দক্ষিণে দ্বীপটির অবস্থান। মিয়ানমারের উত্তর-পশ্চিম উপকূলের প্রায় ৮ কি:মি: পশ্চিমে নাফ নদীর মোহনায় বাংলাদেশের এই একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিনের আয়তন মাত্র আট কিলোমিটার। দ্বীপটি জোয়ারের সময় মাত্র ৫কি:মিটারে সংকুচিত হয়।

প্রতিবছর সেন্টমার্টিনে প্রায় ৫লাখ পর্যটক আসা যাওয়া করে। পর্যটকদের থাকার জন্য দ্বীপটিতে অপরিকল্পিত ভাবে গড়ে উঠেছে প্রায় ১০৬ টি হোটেল, মোটেল ও রিসোর্ট। পর্যটকদের যাতায়াতের জন্য রয়েছে আটটি জাহাজ ও ৩০টির বেশি কাঠের ট্রলার।

বর্তমানে নয় হাজার ছয় শত মানুষ বসবাস করছে দ্বীপটিতে। অধিবাসী ও পর্যটকদের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে বাড়ছে বর্জ্যের পরিমাণ। এখানকার মানুষ মূলত মৎস্য শিকার করেই তাদের জীবিকা নির্বাহ করেন।

সেন্টমার্টিন দ্বীপের ভ্যান চালক মোহাম্মদ আলমগীর ও নুরুল ইসলাম বলেন, প্রতিদিন এক থেকে দেড় হাজার টাকা আয়। গত কয়দিনে পর্যটক বেশি আসায় আয় রোজগার ভালো হয়েছে। ঢাকা হোটেলের মালিক নুরুল আমিনও পর্যটকদের সংখ্যা বৃদ্ধিতে ব্যবসা ভালো হচ্ছে বলে জানালেন।

পরিবেশ অধিদপ্তরের সূত্রে জানা গেছে, সেন্টমার্টিন দ্বীপে আছে ১৫৪ প্রজাতির শৈবাল, ১৫৭ প্রজাতির উদ্ভিদ, ৬৮ প্রজাতির প্রবাল, ১৯১ প্রজাতির শামুক-ঝিনুক, ১০ প্রজাতির কাঁকড়া, ৬ প্রজাতির প্রজাপতি, ২৩৪ প্রজাতির মাছ, ৪ প্রজাতির উভচর, ২৯ প্রজাতির সরীসৃপ, ৭৭ প্রজাতির পাখি, ৩৩ প্রজাতির পরিযায়ী পাখি ও ২৫ প্রজাতির স্তন্যপায়ী প্রাণী।

সেন্টমার্টিন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুর আহমদ বলেন, প্রতিদিন গড়ে ৭/৮ হাজার পর্যটক সেন্টমার্টিন ভ্রমণে আসছেন।

ভ্রমণে আসা উখিয়ার হিলটপ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইয়াছমিন আকতার বলেন, সমুদ্র সৈকতে ময়লা-আবর্জনার স্তূপ পড়ে আছে। এ ব্যাপারে সরকারের পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি