রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৮:৩৭ পূর্বাহ্ন

আম নিয়ে ঢাকায় আসছে ‘ম্যাংগো স্পেশাল’

নিউজ ডেস্ক : আম নিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশন থেকে শুক্রবার বিকেলে ঢাকার উদ্দেশে যাত্রা করেছে ‘ম্যাংগো স্পেশাল’ ট্রেন। এ উপলক্ষে চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলস্টেশনে ট্রেনটিতে আম উঠিয়ে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মো. আব্দুল ওদুদ, নারী সংসদ সদস্য ফেরদৌসী ইসলাম জেসী ও জেলা প্রশাসক এজেডএম নূরুল হক।

এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. রুহুল আমিন, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. নজরুল ইসলাম, গ্রামীণ ট্রাভেলসের চেয়ারম্যান মো. মোখলেসুর রহমান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ চেম্বার অ্যান্ড কর্মাসের সভাপতি মো. এরফান আলীসহ অন্যরা।

প্রথমদিন এক হাজার কেজি আম চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেল স্টেশন থেকে বুকড করা হয়। মোট ৬টি মালবাহি গাড়ির প্রতিটি ওয়াগনে ৪৫ হাজার কেজি আম ও বিভিন্ন শাকসবজি, ফলমূল, ডিমসহ অন্যান্য কৃষিজাত পণ্য ক্যারেটের মাধ্যমে বহন করতে পারবেন ব্যবসায়ীরা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার মো. মনিরুজ্জামান জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে কেজি প্রতি আমের ভাড়া ১ টাকা ৩০ পয়সা নির্ধারণ করা হয়েছে। ট্রেন ছাড়ার আধা ঘণ্টার পূর্ব মুহূর্ত পর্যন্ত মালামাল বুকিং দিতে পারা যাবে।

তিনি আরও জানান, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী ট্রেনটির নাম হবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন-২’। আর ঢাকা থেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ ফেরার পথে নাম হবে ‘ম্যাংগো স্পেশাল ট্রেন-১’। ট্রেনটি সপ্তাহে প্রতিদিন চলাচল করবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে বিকেল ৪টায় ছেড়ে যাবে। রাজশাহী পৌঁছাবে ৫টা ২০ মিনিটে। এখানে ৩০ মিনিট থেমে ৫টা ৫০ মিনিট ট্রেনটি যাত্রা শুরু করবে। এরপর ট্রেনটি ঢাকায় পৌঁছাবে রাত ১টায়। অপরদিকে ঢাকা থেকে ট্রেনটি রাত ২টা ১৫ মিনিটে ছেড়ে আসবে। রাজশাহী পৌঁছাবে সকাল ৮টা ৩৫ মিনিটে। এখানে ২০ মিনিট থেমে ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। পৌঁছাবে সকাল ১০টা ১৫ মিনিটে।

মো. মনিরুজ্জামান জানান, ট্রেনটিতে মোট ছয়টি ওয়াগন থাকবে। প্রতিটি ওয়াগনে ৪৫ হাজার কেজি আম নেয়া যাবে। তবে শুধু আম নয়, সকল প্রকার শাকসবজি, ফলমূল, ডিমসহ কৃষি পণ্য, বাড়ির ফর্ণিচার এবং রেলওয়ের আইনে পার্সেল হিসেবে বহনযোগ্য সকল সামগ্রী বহন করা হবে। স্পোশাল ট্রেনটি চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে ছেড়ে এসে আমনূরা বাইপাস, কাঁকনহাট, রাজশাহী, সরদহ, আড়ানি ও আব্দুলপুর বাইপাস স্টেশনে থামবে। এসব স্থানে আমসহ পার্সেল পণ্য ট্রেনে তোলা হবে। টাঙ্গাইল, মির্জাপুর, কালিয়াকৈর, জয়দেবপুর, টঙ্গী, বিমানবন্দর, ক্যান্টনমেন্ট, তেজগাঁও এবং কমলাপুর স্টেশনে ট্রেনটি থামবে। ফেরার পথে ট্রেনটি তেজগাঁও, টঙ্গী, টাঙ্গাইল, সিরাজগঞ্জ, চাটমোহর এবং রাজশাহী স্টেশনে থামবে। তবে যাত্রাপথে কোথাও সাধারণ যাত্রী এ ট্রেনে তোলা হবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি