রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০১:১৮ অপরাহ্ন

ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফরের দায়িত্ব পরিবর্তন চাই অভিভাবক সদস্যবৃন্দ

রাজশাহী ব‍্যুরো প্রতিনিধি :: নাটোরের লালপুর উপজেলার দুড়দুড়িয়া ইউনিয়নে অবস্থানরত মনিহারপুর- রামকৃষ্ণপুর উচ্চ বদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমানের দায়িত্বের পরিবর্তন চেয়ে বিভিন্ন শিক্ষা অফিস বরাবর লিখিত আবেদন করেছেন অত্র প্রতিষ্ঠানের ছাত্র অভিভাবক সদস্য বৃন্দ।

আবেদন সূত্রে জানা গেছে,২০১৮ সাল থেকে আদ্যবদী উক্ত বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছে অত্র বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক অচল,ও বাকপ্রতিবন্ধী লুৎফর রহমান।তিনি বর্তমানে শারীরিক ভাবে প্রতিবন্ধী,পঙ্গু,অচল ও স্টোকের রোগী।তার দ্বারা এই প্রতিষ্ঠানটি সুষ্ঠ ভাবে পরিচালনা করা কোন ভাবেই সম্ভব না।
বিদ্যালয়টিতে ভোকেশনাল শাখা সহ প্রায় ৪৫০ জন ছাত্র/ ছাত্রী অধ্যায়ন করছে এবং ২৯ জন শিক্ষক কর্মচারী রয়েছে।

এ ছাড়াও ঐ স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব উদ্দিন মালিক তিনিও একজন অসুস্থ,বয়স্ক ও অথর্ব ব্যাক্তি।তিনি ২০১৬ সাল থেকে পরপর ৪(চার বার)এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হয়ে আসছেন বলেও জানা গেছে।

২০১৯ সাল থেকে আদ্যবধি ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব উদ্দিন মালিথা অসুস্থ জনিত কারনে ১ দিনের জন্যও স্কুলে না এসে তার নিজ বাড়িতে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফরের আতাতে ইচ্ছে মত নাম মাত্র কয়েক জন শিক্ষকদের নিয়ে স্কুলের বিষয় নিয়ে সভা পরিচালনা করেন।

অপর দিকে অচল,শারিরীক প্রতিবন্ধী ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব উদ্দিন মালিথার ক্ষমতার দাপটে ৩/৪ জন সহকারী শিক্ষককে স্কুলের কাজের অজুহাত দেখিয়ে বিভিন্ন জায়গায় পাঠাতে বাধ্য করে।এতে ছাত্র ছাত্রীদের লেখাপড়ার ব্যাপক ক্ষতি হয়ে বিদ্যালয়টি ধীরে ধীরে ধ্বংসের দিকে চলে যাচ্ছে।লুৎফর রহমানের বিরুদ্ধে পূর্বের অনেক অভিযোগও রয়েছে।

এ মতাবস্থায় স্কুলটির সার্বিক সমস্যা সমাধানের লক্ষ্য অত্র প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অচল,প্রতিবন্ধী ও স্টোকের রোগী লুৎফর রহমানকে তার দায়িত্ব থেকে পরিবর্তন করে সিনিয়র কোন শিক্ষক কে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের দায়িত্ব প্রদান ও নতুন করে ছাত্র/ছাত্রী অভিভাবক সদস্যদের সমন্বয়ে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন করা হয়েছে বলে জানান অত্র প্রতিষ্ঠানের অভিভাবক সদস্যবৃন্দ।

এ বিষয়ে অত্র প্রতিষ্ঠানের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক লুৎফর রহমান ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নায়েব উদ্দিন মালিথার মুঠোফোনে একাধিক বার কল দিলে তারা কল রিসিভ করেনি। এ বিষয়ে লালপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ইসাহাক আলী বলেন,লিখিত আবেদন পাওয়া গেছে বিষয় টি দ্রুত খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

লালপুর উপজেলার মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন,মনিহারপুর- রামকৃষ্ণপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন ধরেই বিভিন্ন সমস্যা হচ্ছে বলে জানা গেছে। ছাত্র/ছাত্রী অভিভাবক সদস্যদের পক্ষ থেকে একটি লিখিত আবেদনও পাওয়া গেছে বিষয় টি দ্রুত খতিয়ে দেখা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি