বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ০৮:৫২ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
আবারও শ্বাসরুদ্ধকর জয়, ৭ বছর পর ভারতের বিপক্ষে সিরিজ বাংলাদেশের নয়াপল্টনে সরব বিএনপি নেতাকর্মীরা, সতর্ক অবস্থানে পুলিশ নয়াপল্টনে সমাবেশ করলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কেন্দ্রীয় ব্যাংক থেকে ধার প্রথম দিনই ৪ হাজার কোটি টাকা নিলো পাঁচ ইসলামী ব্যাংক সংঘাত নয়, আমরা সমঝোতায় বিশ্বাসী: প্রধানমন্ত্রী কর্মক্ষেত্রে মানসিক নির্যাতনের শিকার ৫৮ কোটি মানুষ আবারও ট্রোলের শিকার জ্যাকুলিন বেগমগঞ্জের দুর্গাপুর ইউনিয়ন ছাত্রদলের কমিটি গঠন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি (কুবিসাস) এর এক দশকে পদার্পণ বিএনপির মনোনয়ন বাণিজ্যের কথা ‘ফাঁস করলেন’ প্রধানমন্ত্রী

৫৪ দেশের জন্য জুলাইয়ে শেনজেন ভিসা চালু, নেই বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক : ইউরোপিয় ইউনিয়নের (ইইউ) সদস্য দেশগুলোর সীমান্ত খুলে দেওয়ার পর ৫৪টি দেশের নাগরিকেরা শেনজেন ভিসা পাবেন। জুলাইয়ের শুরুতে তারা এ সুবিধা পাবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

ওই খসড়া তালিকায় বাংলাদেশের নাম নেই। তবে আমাদের তিন প্রতিবেশী ভারত, মিয়ানমার ও ভুটানের নাম আছে তালিকায়। শেনজেন ভিসা ওয়েবসাইট সূত্রে বিষয়টি জানা গেছে।

গলফ টুডের এক খবরে বলা হয়েছে, শুক্রবার ইউরোপিয় ইউনিয়নের নেতারা শেনজেন ভিসা (যে সব দেশের নাগরিকদের আবারও ইউরোপে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হবে) দেওয়ার ক্ষেত্রে দেশগুলোর তালিকা চূড়ান্তের কাছাকাছি পৌঁছেছিল। তবে শেষ পর্যন্ত তারা দেশগুলোর একটি সাধারণ তালিকার বিষয়ে ঐকমত্যে ব্যর্থ হয়েছেন। এরই মধ্যে ওই তালিকা নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপকহারে করোনভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার কারণে আমেরিকানদের স্বল্পমেয়াদে তালিকা থেকে বাদ দিয়েছে ইইউ। এক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্র, ব্রাজিল, কাতার ও রাশিয়ার নাগরিকরা তাদের দেশে মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার পর ইউরোপে প্রবেশ করতে পারবেন।

ইইউ কমিশনের মুখপাত্র এরিক ম্যামার বৃহস্পতিবার বলেন, ‘ইউরোপিয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলোতে কোন দেশের যাত্রীদের অবাধ প্রবেশের সুযোগ দেওয়া নিরাপদ হবে তা নির্ধারণের জন্য একটি অভ্যন্তরীণ প্রক্রিয়া রয়েছে। এ সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যের মানদণ্ড প্রধান বিবেচ্য।’

১১ জুন কমিশন কমিশনের এক সুপারিশে ইউরোপিয় দেশগুলোর অভ্যন্তরে শেনজেন সীমানা পুনরায় খোলার জন্য ১৫ জুন তারিখ নির্ধারণ করা হয়, যাতে ইউরোপিয়রা পুরো অঞ্চলে মহামারির আগের মতো অবাধে ভ্রমণ করতে পারেন।

একই সঙ্গে কমিশন সুপারিশ করেছিল, সদস্য দেশগুলোর ১ জুলাই থেকে ধীরে ধীরে ও আংশিকভাবে ইইউ’র বাইরের দেশগুলোকে প্রবেশের সুযোগ দেওয়া উচিত। তবে এক্ষেত্রে ওইসব দেশের মহামারি পরিস্থিতি বিবেচনায় নিতে বলা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি