মঙ্গলবার, ১৮ Jun ২০২৪, ০২:০৭ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

করোনাভাইরাসের চেয়ে ক্ষুধায় বেশি মানুষ মারা যেতে পারে: অক্সফাম

নিউজ ডেস্ক : খাবার না পেয়ে বিশ্বে প্রতিদিন ১২ হাজারের বেশি মানুষ মারা যেতে পারে, যা করোনাভাইরাসের চেয়ে বেশি মৃত্যু বয়ে আনবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছে অক্সফাম। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত নতুন এক প্রতিবেদনে সংস্থাটি এ তথ্য জানিয়েছে।

করোনাভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়ে গত এপ্রিলে বিশ্বজুড়ে গড়ে প্রতিদিন ১০ হাজার মানুষ মারা গেছে। চলতি বছরের শেষে খাবার না পেয়ে বিশ্বে প্রতিদিন ১২ হাজারেরও বেশি মানুষ মারা যাবে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছে সংস্থাটি।

‘দ্য হাঙ্গার ভাইরাস’ শীর্ষক অক্সফামের ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চাকরি হারানো, খাবার উৎপাদন কমে যাওয়া ও মহামারির কারণে সহায়তার কমে যাওয়া-এসব কারণে মানুষ অনাহার পরিস্থিতিতে চলে যেতে পারে।

খাবার না পেয়ে মানুষ মারা যেতে পারে এমন ১০টি দেশ হলো- ইয়েমেন, কঙ্গো, আফগানিস্তান, ভেনেজুয়েলা, পশ্চিম আফ্রিকান সাহেল, ইথিওপিয়া, দক্ষিণ সুদান, সিরিয়া, সুদান এবং হাইতি।

অক্সফামের অন্তর্বর্তীকালীন নির্বাহী পরিচালক চেমা ভেরা বলেছেন, সংঘাত, জলবায়ু পরিবর্তন, বৈষম্য এবং ভঙ্গুর খাদ্য ব্যবস্থার সঙ্গে মানুষ লড়াই করে আসছিল। বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে তাদের এই লড়াই আরও কঠিন হয়ে পড়েছে। খাদ্য উৎপাদনের সঙ্গে জড়িত ও বিশ্বের লাখ লাখ শ্রমিক কর্মহীন হয়ে পড়েছেন।

চেমা ভেরা আরও বলেছেন, বিভিন্ন দেশের সরকারকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে। সংক্রমণের ফলে কর্মহীন মানুষদের ক্ষুধা নিবারণের জন্যও পদক্ষেপ নিতে হবে।

ভেরা যোগ করেন, এই ক্ষুধা সঙ্কটের অবসান ঘটাতে সরকারকে আরও শক্তিশালী এবং টেকসই খাদ্য ব্যবস্থা তৈরি করতে হবে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: