শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪২ অপরাহ্ন

চীনে খাঁটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বলতে কিছু নেই: তাইওয়ানের মন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক : চীনে খাঁটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বলতে কিছু নেই বলে মন্তব্য করেছেন তাইওয়ানের প্রযুক্তিবিষয়ক মন্ত্রী অড্রে ট্যাং। তিনি বলেছেন, কোর টেলিকম অবকাঠামোতে চীনের সরঞ্জাম ব্যবহার করা মানেই হলো নেটওয়ার্কে ‘ট্রোজান হর্স’-এর মতো সফটওয়্যার আমন্ত্রণ করার অনুরূপ।

সুরক্ষা ইস্যুতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক ব্যবস্থায় চীনের টেলিকম কোম্পানি হুয়াওয়ের সরঞ্জাম (যন্ত্রাংশ) নিষিদ্ধ করার পর অড্রের এমন মন্তব্য এলো।

তিনি বলেছেন, পরিস্থিতি বদলে গেলে চীনের ক্ষমতাসীন দল যেকোন সময় তাদের নেতাকে পরিবর্তন করে ফেলতে পারেন। সেখানে খাঁটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মত কোনো জিনিসের অস্তিত্ব নেই। খবর দ্য সিঙ্গাপুর পোস্টের

তিনি বলেন, আপনি যদি তাদের (চীন-নেটওয়ার্ক সংস্থাগুলি) অবকাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করেন তবে প্রতিবার সিস্টেম আপডেট করার সময় আপনাকে খুব সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। কারণ তারা সিস্টেমে কোনও ট্রোজান হর্স সফটওয়্যার দিয়ে নেটওয়ার্ককে দুর্বল করে তুলতে পারে।

অড্রে বলেন, বিশ্ব যখন চীনের প্রযুক্তি সংস্থাগুলির ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক অবকাঠামোতে অন্তর্ভুক্ত করবে কিনা সে বিষয়ে কথা বলছে, আমরা ফোর-জি যুগে ইতোমধ্যে এটি করে দেখিয়েছি।

সম্প্রতি ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক ব্যবস্থায় হুয়াওয়ের সরঞ্জাম (যন্ত্রাংশ) নিষিদ্ধ করেছে যুক্তরাজ্য। যুক্তরাজ্যের আর কোনও টেলিকম অপারেটর হুয়াওয়ে থেকে ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক ব্যবস্থার সরঞ্জামাদি কেনার অনুমোদন পাবে না।

হুয়াওয়ের সরঞ্জামাদি ত্যাগ করতে ব্রিটিশ সরকার গত কয়েক মাস দেশীয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে প্রচণ্ড চাপের মুখে ছিল। এই চাপ এসেছে মূলত নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে। নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, হুয়াওয়ের সরঞ্জামের মাধ্যমে পশ্চিমা দেশগুলোর ওপর নজরদারি চালাতে পারে চীন। এ কারণে চীনা প্রতিষ্ঠানটির সব সরঞ্জাম নিষিদ্ধ করতে হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি