বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৬ অপরাহ্ন

লক্ষ্মীপুরে সেফটি ট্যাংকে অক্সিজেনের অভাবে ২জনের মৃত্যু

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরে একটি আবদ্ধ সেফটি ট্যাংকে কাজ করতে গিয়ে মারা গেছে দুই নির্মাণ শ্রমিক। বুধবার (৯ আগষ্ট) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে জেলার সদর উপজেলার বাঙ্গাখাঁ ইউনিয়নের হোগলডুহরী গ্রামে আবদুল বশির ব্যাপারী বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন, ওই গ্রামের হাওলাদার বাড়ির দ্বীন মোহাম্মদের পুত্র ফারুক হোসেন (২২) ও আবুল বাসারের পুত্র মো. কামাল (২৮)। তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে সোহাগ (২২) ও ইউসুফ (৪৫) নামের দুই ব্যক্তি আহত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা সেফটি টাংকের ভেতর থেকে মৃতদেহ দুইটি উদ্ধার করে। দুপুরে পুলিশ মরদেহগুলো সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করে।

সেফটি টাংকিতে বিষাক্ত গ্যাস থাকায় এবং অক্সিজেন সঙ্কটের কারণে তাদের মৃত্যু হতে পারে বলে ধারণা স্থানীয়দের। এ ঘটনার পরিবারসহ এলাকাবাসীদের মধ্যে শোকের মাতম বিরাজ করছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হোগলডুহরী গ্রামের আবদুর রশিদ ব্যাপারী বাড়ির মো. নিজাম নামে এক ব্যক্তির সেফটি ট্যাংকের ভেতরে থাকা সেন্টারিং এর বাঁশ-কাঠ খুলতে যায় নির্মাণ শ্রমিক ফারুক ও কামাল। প্রথমে তারা পাম্পের সাহায্যে ট্যাংকের ভেতরের পানি নিষ্কাষণ করে। পরে ঢাকনা সরিয়ে আবদ্ধ টাংকিতে ঢুকে ফারুক। এর ৩০ সেকেন্ডের মধ্যেই ফারুকের মৃত্যু হয়।

তাকে উদ্ধার করতে কামালও ভেতরে ঢুকলে তিনিও কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে মারা যান। তাদের উদ্ধার করতে গিয়ে কোমরে দড়ি বেঁধে টাংকির ভেতরে প্রবেশ করেন সোহাগ নামে এক ব্যক্তি। তিনিও গুরুতর আহত হয়ে গেলে স্থানীয়রা তাকে টেনে উপরে তুলে। এতে ইউসুফ নামে আরও একজন আহত হয়। তাদের সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, গত ৪/৫ মাস আগে সেফটি টাংকটি (ময়লার টাংকি) নির্মাণ করা হয়েছে। এ কয়েক মাস সেটি আবদ্ধ ছিলো। তবে সেটি ব্যবহার শুরু হয়নি। আবদ্ধ থাকায় সেখানে বিষাক্ত গ্যাস জমে থাকতে পারে।
লক্ষ্মীপুর ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার ওয়াসি আজাদ জানান, ট্যাংকিতে বিষাক্ত গাসের কারণে দুই শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। অপর আহত দুইজনকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সদর থানা পুলিশের এসআই প্রেমানন্দ জানান, মৃতদেহ উদ্ধার করে সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি