সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ১২:৩০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫ বিদেশি ঋণের প্রকল্প দ্রুত শেষ করার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চৌদ্দগ্রামে জায়গা জমি সংক্রান্ত বিরোধে ছুড়িআঘাতে যুবক নিহত, গ্রেফতার-২ নোয়াখালী সুবর্ণচরে গাভীর সিজারিয়ান অপারেশন নোয়াখালী সদরে হজ্ব প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত চৌদ্দগ্রামে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মনোনয়ন পত্র জমা বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে ৩ প্রার্থীসহ ৯জনের মনোনয়নপত্র দাখিল

ছোটভাই-বড় ভাই দ্বন্দ্বে ধারালো ছুঁড়ি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা

নিউজ ডেস্ক :: ছোটভাই-বড় ভাই দ্বন্দ্বে ধারালো ছুঁড়ি দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয় কিশোর জব্বারকে। পরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় একদিন পর মারা যায় সে। পুলিশ দুই আসামিকে গ্রেফতার করলেও পরিবারের দাবি, চার আসামি এখনো অধরা। যারা হুমকি দিচ্ছে মামলা তুলে নিতে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন জিয়া খান। সিসিটিভির ফুটেজ। চার থেকে পাঁচজন কিশোর এক কিশোরকে মারধর করছে। সিসিটিভির ফুটেজ তাই বলছে। মারধরের এক পর্যায়ে ইমন নামে এক কিশোর জব্বারকে ছুঁরি মারে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় পর দিন মারা যায় জব্বার।

রাজধানীর দক্ষিণ রাজারবাগে গেলো সাত সেপ্টেম্বরের রাতে ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, দ্বন্দ্বে জড়ানো কিশোররা সবাই সমবয়সী। একসাথে চলতো তারা। সামান্য বিষয় নিয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ঘটে যায় খুনের ঘটনা। ঘটনার দুদিন পর ইমনকে আসামি করে মামলা করা হয় সবুজবাগ থানায়। কিন্তু বাদীর অভিযোগ, ইমন ছাড়াও আরো চারজন হত্যায় জড়িত থাকলেও তাদের নামে মামলা নেয়নি পুলিশ। কিশোর গ্যাং কালচার এই মায়ের বুক থেকে কেড়ে নিয়েছে সন্তানকে। যার বিচার চান তিনি। জব্বারের মতো আরো কতো কিশোর যে গ্যাং কালচারের বলি হচ্ছে তার হিসেবে কে রাখছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: