শনিবার, ১৫ Jun ২০২৪, ১২:২০ অপরাহ্ন

শিরোনাম
মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে বঙ্গবন্ধু বঙ্গমাতা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত শিক্ষার্থী নির্যাতন প্রতিরোধে মাদরাসা প্রধানদের সাথে পুলিশের মতবিনিময় সভা মালয়েশিয়ায় ১২৩ বাংলাদেশীসহ ২১৪ অবৈধ অভিবাসী গ্রেপ্তার বেনজিরের আরও সম্পত্তি ক্রোকের নির্দেশ মডেল মির্জা মাহির প্রথম মিউজিক ভিডিও “কিশোরী রোদ” জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর সাংগঠনিক সম্পাদক আমান ডেঙ্গু জ্বর আক্রান্ত শিবালয়ে ভূমি সেবা সপ্তাহ শুরু উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা রাজশাহী নগরীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ২৫ চৌদ্দগ্রামে ভূমি সেবা সপ্তাহ’র ২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন কবে, জানালেন ওবায়দুল কাদের

করোনা শূন্য উহান

করোনার গতি থামাতে বিশ্বের অন্যান্য দেশ যেখানে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে উহানকে করোনা মুক্ত ঘোষণা করেছে চীন। যদিও রাজধানী বেইজিংসহ অন্যান্য স্থানে এখনও সংক্রমণের খবর পাওয়া যাচ্ছে। তবে তা অনেক কম। 

চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়েটার্স এ খবর জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য কমিশনের মুখপাত্র মি ফেং বলেন, ‘২৬ এপ্রিল পর্যন্ত উহানে করোনা রোগীর সংখ্যা শূন্য। এর জন্য উহান ও সারাদেশের স্বাস্থ্যকর্মীদের যৌথ প্রচেষ্টাকে ধন্যবাদ জানাই।’

উহানে এখন পর্যন্ত ৪৬ হাজার ৪৫২ জন ভাইরাসটির শিকার হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ৩ হাজার ৮৬৯ জন, যা চীনে মোট মৃত্যুর প্রায় ৮৪ শতাংশ।

গত বছরের ৩১ ডিসেম্বর দেশটির হুবেই প্রদেশের উহান শহরের একটি সবজি বাজার থেকে কোন এক প্রাণীর মাধ্যমে ভাইরাসটির সৃষ্টি হয়। যদিও তা নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। যা বিশ্বের ২১১টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে।

করোনার প্রকোপ দেখা দিলে গত জানুয়ারি মাসের শেষের দিকে গোটা হুবেইজুড়ে লকডাউন ঘোষণা করা হয়। বন্ধ করে দেয়া হয় সবধরনের যান চলাচল, কলকারখানা ও বিমান চলাচল। জরুরি নিত্যপণ্য কেনা ছাড়া বাইরে বের হওয়ায় দেয়া হয় কড়া নিষেধাজ্ঞা। বন্ধ হয়ে যায় অনেক নামিদামি প্রতিষ্ঠান। ক্ষতিরমুখে পড়ে বিলিয়ন বিলিয়ন ডলার। যার প্রভাব পড়ে বিশ্ব অর্থনীতিতে।

হাজারো প্রচেষ্টায় দেশটিতে গতমাসের প্রথম দিকে নিয়ন্ত্রণে আসে করোনা। এরপর সম্প্রতি তুলে নেয়া হয় লকডাউন। ফলে অনেকটা স্বাভাবিক অবস্থায় এখন চীন। তবে বহিরাগতদের এখনও পরীক্ষা ছাড়া শহরে ঢুকতে দেয়া হচ্ছে না। কারণ, বাকি অঞ্চলগুলোতে সংক্রমণ কমে গেলেও উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় হেইলংজিয়াং প্রদেশে রাশিয়াফেরত নাগরিকদের মাধ্যমে করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছেই।

বিশ্বের সবচেয়ে জনবহুল দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৮২ হাজার ৮২৭ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩২ জন।

উৎপত্তিস্থল চীন স্বাভাবিক জীবনে ফিরলেও মৃত্যু উপত্যকায় ইউরোপ ও আমেরিকা। ক্রমেই ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে বিশ্বের অন্যান্য দেশেও। যার শিকার হয়েছেন এখন পর্যন্ত ২৯ লাখ প্রায় ৩০ হাজার মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ২ লাখ সাড়ে ৩ হাজার মানুষের। যদিও সুস্থ হয়ে এখন পর্যন্ত হাসপাতাল ছেড়েছেন ৮ লাখ ৩৮ হাজার ৯শ জন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: