বৃহস্পতিবার, ৩০ মে ২০২৪, ০৪:১৮ অপরাহ্ন

শিরোনাম
সুবর্ণচরে ঘূর্ণিঝড় রিমেলের রাতে অসহায় ব্যবসায়ীর দোকান লুট ও উচ্ছেদের অভিযোগ রাজশাহী নগরীতে ৬৬ হাজার ৫১৩ জন শিশুকে ভিটামিন এ ক্যাপসুল খাওয়ানো হবে নগরীতে পুলিশের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত গ্রেপ্তার ময়নার শেষ কথা” চলচ্চিত্র নিয়ে আসছে ইরা শিকদার চৌদ্দগ্রাম উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষ্যে আ’লীগের নেতা কর্মিদের মত বিনিময় সভা সুবর্ণচরে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ সাবেক ইউপি সদস্য মাহে আলমের বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জের শ্রেষ্ঠ ওসি নির্বাচিত হলেন শিবালয় থানা অফিসার ইনচার্জ রউফ সরকার শহীদ আহ্সান উল্লাহ মাস্টারের শাহাদাৎ বার্ষিকী পালন বাবুর শপথ – মোবারক হোসেন দেলোয়ার চৌদ্দগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে নিহত-৫, আহত-১৫

হেলিকপ্টারে বিয়ে করতে গেলেন রূপপুর প্রকল্পের প্রকৌশলী

নিউজ ডেস্ক : বাবার শখ মেটাতে হেলিকপ্টার নিয়ে বিয়ে করতে গিয়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন পাবনার ঈশ্বরদীতে বাস্তবায়োনাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণ প্রকল্পের এক প্রকৌশলী। তার নাম হারুন অর রশিদ বাদশা।

তিনি নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর পাবনা পাড়া এলাকার স্কুল শিক্ষক মওলানা নুরুল ইসলামের ছেলে। বাদশা ঈশ্বরদীর রূপপুর প্রকল্পের প্রকৌশলী হিসেবে কর্মরত।

জানা গেছে, ছোটবেলায় ছেলেকে হেলিকপ্টারে চড়িয়ে বিয়ে করাতে নিয়ে যাবেন এমন শখ ছিল বাবা নুরুল ইসলামের। সেই শখ মেটাতেই এই হেলিকপ্টারে বরযাত্রার আয়োজন করা হয়েছিল ছিল বলে জানান বাদশার বাবা নুরুল ইসলাম।

নুরুল ইসলাম জানান, রাজশাহী জেলার গোদাগাড়ি উপজেলার রাজাবাড়ি হাট এলাকার অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট নুহুননবীর মেয়ে প্রকৌশলী উর্মি আক্তারের সঙ্গে পারিবারিক আয়োজনে শনিবার বিকেলে রাজশাহীর একটি কমিউনিটি সেন্টারে বাদশার বিয়ের আয়োজন করা হয়। বাগাতিপাড়া উপজেলার সোনাপুর গ্রাম থেকে সেখানেই হেলিকপ্টারে ৪ জন বরযাত্রী নিয়ে উপস্থিত হন বাদশা। অন্য বরযাত্রীরা কয়েকটি মাইক্রোবাস নিয়ে সড়কপথে রাজশাহী পৌঁছান।

স্থানীয়রা জানায়, বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষে কনেকে নিয়ে হেলিকপ্টারেই বাড়ি ফিরেন বাদশা। এসময় হেলিকপ্টার দেখতে আশপাশের বিভিন্ন এলাকার মানুষ সোনাপুর গ্রামে ভিড় করেন।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: