মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:৩৮ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
ক্রীড়াবিদরা দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনছে- ধর্মমন্ত্রী উজিরপুরে সৎসঙ্গ ফাউন্ডেশনের সেমিনার অনুষ্ঠিত শিবালয়ে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিবাড়ি খেলা অনুষ্ঠিত লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড ঈদের দিনে সদরঘাটে দুর্ঘটনায় ঝরল ৫ প্রাণ সৌদির সাথে মিল রেখে নোয়াখালীর ৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন নোয়াখালীতে দুর্বৃত্তরা ঘর আগুনে পুড়ে দিয়েছে, ১০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি সুবর্ণচরে মানব কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে হতদরিদ্র ও অসহায়দের মাঝে ঈদ সামগ্রী বিতরণ  ঢাকা আরিচা মহাসড়কের মসুরিয়ায় নামে এক অজ্ঞাত ব্যাক্তি সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত চাটখিলে ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের মাঝে ঈদ উপহার বিতরণ

তৌকীরের ‘স্ফুলিঙ্গ’র শুটিং শেষ

নিউজ ডেস্ক :: জনপ্রিয় নির্মাতা তৌকীর আহমেদ। তার নতুন চলচ্চিত্র স্ফুলিঙ্গ। মাত্র ২৩ দিনেই সিনেমাটির শুটিং শেষ করলেন তিনি।

গত ১১ ডিসেম্বর থেকে রাজেন্দ্রপুরের নক্ষত্রবাড়ি রিসোর্টে সেট তৈরি করে সিনেমাটির শুটিং শুরু হয়। এরপর টানা শুটিং শেষে বন্ধ হলো ক্যামেরা।

এ নিয়ে তৌকীর আহমেদ বলেন, ‘টানা কাজ করে স্ফুলিঙ্গের শুটিং শেষ করা হয়েছে। তবে কিছু প্যাসওয়ার্ক বাকি রয়েছে। ডাবিং ও এডিটিংয়ে মাঝেই সে কাজগুলো করে ফেলবো।’

টানা ২৩ দিনে শুটিং শেষ করতে সিনেমাটির আর্টিস্টসহ সবাই দারুন সহযোগিতা করেছেন বলে জানান এ নির্মাতা। এ জন্য তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

তৌকীর আহমেদের এবারের সিনেমা একটি ব্যান্ড দলকে নিয়ে। মূলত বঙ্গবন্ধুর আদর্শের ও চেতনার সঙ্গে তারুণ্যের একটি মেলবন্ধন পাওয়া যাবে এ সিনেমাতে। এমনটাই জানিয়েছেন নির্মাতা।

সিনেমার গল্প প্রসঙ্গে তৌকীর জানান, মুক্তিযুদ্ধ এবং তারুণ্যে সৃজনশীলতার সম্পর্ক নিয়ে সিনেমাটি এগিয়ে যাবে। ব্যান্ড সংগীতের মধ্য দিয়ে সম্পর্কের, সৃষ্টির ও বিপ্লবের নানা রূপ ফুটে উঠবে এতে। পাশাপাশি দায়িত্ববোধের স্পৃহাও তুলে ধরা হবে।

সিনেমাটির চারটি কেন্দ্রীয় চরিত্রে রয়েছেন- রওনক হাসান, পরীমনি ও শ্যামল মাওলা ও জাকিয়া বারী মম। এছাড়া আরও অভিনয় করেছেন- আবুল হায়াত, মামুনুর রশীদ, শহীদুল আলম সাচ্চু প্রমুখ।

সিনেমাটির সংগীত পরিচালনার দায়িত্বে আছেন পিন্টু ঘোষ। মার্চে সিনেমাটি মুক্তি দেয়ার পরিকল্পনা কথা জানিয়েছেন পরিচালক।

‘স্ফুলিঙ্গ’ প্রযোজনা করছে ‘স্বপ্নের বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’।

উল্লেখ্য, তৌকীর এর আগে ‘জয়যাত্রা’, ‘রুপকথার গল্প’, ‘দারুচিনি দ্বীপ’, ‘অজ্ঞাতনামা’, ‘হালদা’ ও ‘ফাগুন হাওয়ায়’ নির্মাণ করে প্রশংসিত হয়েছেন।
এসএ/


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: