শনিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২২, ০৫:৫২ অপরাহ্ন

আরেক দফা বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি, জনগণের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষনার সামিল-বাম ঐক্য ফ্রন্ট

আরেক দফা বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণাকে জনগণের বিরুদ্ধে সরকারের যুদ্ধ বলে অভিহিত করেছেন বাম ঐক্য ফ্রন্ট এর নেতৃবৃন্দ। ফ্রন্টের সমন্বয়ক ও গণমুক্তি ইউনিয়নের আহ্বায়ক নাসির উদ্দিন আহমেদ নাসু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ এর আহ্বায়ক সন্তোষ গুপ্ত, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক সরোয়ার মুর্শোদ এবং কমিউনিস্ট ইউনিয়ন এর আহ্বায়ক ইমাম গাজ্জালী এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

তারা বলেন, বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) ভর্তুকির ভার কমানোর নামে আরেক দফা বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিয়েছে।
ঘোষণাটি এমন সময় আসল যখন সরকারের সীমাহীন লুটতরাজ এবং কোভিড ও রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধে দেশের অর্থনীতি আক্ষরিক অর্থেই ভেঙে পড়েছে, নিত্যপণ্যের মূল্য প্রতিদিনই বাড়ছে। ব্যাংকের রিজার্ভ তলানিতে। খাদ্য ও নিত্যপণ্যের ক্রয়ক্ষমতা অধিকাংশের নাগালের বাইরে। মানুষের টিকে থাকা দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে।
ঠিক সেই সময় আইএমএফ এর শর্ত মেনে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো জনগণের বিরুদ্ধে সরকারের যুদ্ধ ঘোষনার সামিল।

নেতারা আরো বলেন, ভর্তুকি কমানোর নামে পাইকারিতে বিদ্যুতের দাম বাড়ানো কথা বলা হচ্ছে। অথচ বিদ্যুতের বড় ভর্তুকি যাচ্ছে অর্ধেকেরও বেশি বিদ্যুৎ কেন্দ্রকে বসিয়ে বসিয়ে ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়ার কারণে।

যে বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো উৎপাদন করেনি, তাদের ১১ বছরে প্রায় ৬০ হাজার কোটি টাকা দিতে হয়েছে।
বাম ঐক্য ফ্রন্টের নেতারা অবিলম্বে বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা প্রত্যাহার, ক্যাপাসিটি চার্জ দেওয়া বন্ধ এবং নিত্যপন্যের দাম সকলের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে আনা এবং বিদ্যুৎ খাতে লুটপাটকারীদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগীতায় :বাংলা থিমস| ক্রিয়েটিভ জোন আইটি