শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ১২:২৪ পূর্বাহ্ন

শিরোনাম
উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে  প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে হবে- সুবর্ণচর উপজেলা আ.লীগ হাতিয়ার উন্নয়নে সরকারের স্মার্ট বাংলাদেশ কর্মসূচিকে কাজে লাগানো হবে – মোহাম্মদ আলী এমপি সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে ৩৯ বছর পর জমি ফিরে পেলেন যদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা পরিবার শিবালয়ে ১৫তম  মাই টিভির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত  ক্রীড়াবিদরা দেশের জন্য সম্মান বয়ে আনছে- ধর্মমন্ত্রী উজিরপুরে সৎসঙ্গ ফাউন্ডেশনের সেমিনার অনুষ্ঠিত শিবালয়ে গ্রাম-বাংলার ঐতিহ্যবাহী লাঠিবাড়ি খেলা অনুষ্ঠিত লঞ্চের দড়ি ছিঁড়ে ৫ জনের মৃত্যু : আসামিদের তিন দিনের রিমান্ড ঈদের দিনে সদরঘাটে দুর্ঘটনায় ঝরল ৫ প্রাণ সৌদির সাথে মিল রেখে নোয়াখালীর ৪ গ্রামে ঈদ উদযাপন

উজিরপুরে প্রবাসীর স্ত্রীর পরকিয়া দেখে ফেলায় যুবকের হাত-পা ভেঙ্গে নির্যাতন

উজিরপুর প্রতিনিধি : বরিশালের উজিরপুরে এক প্রসাবীর স্ত্রীকে পরকীয়া প্রেমিকের সাথে অন্তরঙ্গ মুহুর্ত দেখে ফেলায় এক যুবককে মধ্যযুগীয় কায়দায় কুপিয়ে ও পিটিয়ে দুই পা ও হাত ভেঙে দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ওই যুবক। মামলার ৮ দিন অতিবাহিত হলেও রহস্যজনক কারণে আসামীকে গ্রেফতার করতে পারছেনা পুলিশ।

এদিকে অসহায় গুরুত্বর আহত যুবক টাকার অভাবে বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর প্রহর গুনছে। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায় গত ২৫ জানুয়ারী রাত ১০টায় উজিরপুর উপজেলার পূর্ব নারায়নপুর গ্রামের মৃত আলম হাওলাদারের ছেলে তাইজুল ইসলাম টিপু(৩০) কে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে মোফাজ্জেল হোসেন এর বাড়ীর সামনে ওৎ পেতে থেকে একই এলাকার সন্ত্রাসী রিফাত হোসেন(২৩), আনোয়ার হোসেন(৫০), রাজিব চৌকিদার(৩৪), জাহিদ মুন্সি(৩৫), মাদকব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম(৪০), মৃদুল হাওলাদার(২০) সহ আরো ৪/৫ জন মিলে হত্যার উদ্দেশ্যে এলোপাথালীভাবে পিটিয়ে ও কুপিয়ে টিপুর ২ পা ও হাত গুরিয়ে দেয় এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

এ সময় তার সাথে থাকা স্বর্ণের চেইন সহ ৮২ হাজার টাকার মালামাল চুরি করে নিয়ে যায়। আহতর ডাকচিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে বানারীপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, পরে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে প্রেরণ করেন। সেখানে অবস্থার আরো অবনতি হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করেন। এদিকে ঘটনার পরে ২৭ জানুয়ারী আহতের মা তাহমিনা বেগম উজিরপুর মডেল থানায় ৬ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করলেও কোন আসামী গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

এব্যাপারে আহত টিপুর চাচা আমীর হোসেন হাওলাদার ও শাহীন হাওলাদার জানান আসামীদের আত্মীয় স্বজন প্রভাবশালী হওয়ায় এবং উজিরপুর উপজেলার শোলক গ্রামের এক এন.এস.আই কর্মকর্তার নাম ভাঙ্গিয়ে বিভিন্ন দপ্তরে আসামীদের পক্ষে তদবির করছেন তারা। এদিকে হামলার মুল রহস্য খুজতে গিয়ে থলের বিড়াল বেরিয়ে আসতে শুরু করে। তাইজুল ইসলাম টিপুর ফুফু বৃদ্ধ রাশিদা বেগম কান্না জড়িত কন্ঠে জানান ২০২৩ সালের অক্টোবর মাসে একই বাড়ীর কাতার প্রবাসী নাসির উদ্দিন হাওলাদারের স্ত্রী আইরিন বেগম(২৫) তাদের বাড়ীর কোয়াটার মাইল দূরে রাত ৩টায় ভবনের কাজ দেখতে বেড় হন। কিছুক্ষণ পড়ে তার পিছু নেন তাইজুল ইসলাম টিপু।

সে তার ভাবী আইরিন বেগমকে আপত্তিকর অবস্থায় পরকিয়া প্রেমিকের সাথে দেখতে পান। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হলে তাৎক্ষনিক আইরিন বেগম বাড়ীতে গিয়ে উল্টো দেবর টিপুর বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানীর অভিযোগ দেয়। এক পর্যায়ে ঘটনার দুই দিন পরে ওই বাড়ীর সাবেক ইউপি সদস্য সালেক হাওলাদার ও প্রবীন ফুফু রাশিদা বেগম সহ বাড়ীর অন্যান্য লোকজন উভয়কে নিয়ে বৈঠক বসে এবং টিপুকে তাৎক্ষনিক চরথাপ্পর দিয়ে এলাকাছাড়ার নির্দেশ দেন এবং আইরিনকেও সংশোধন হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

এই ঘটনার জেড়ে আইরিন বেগম এর পিতা একই এলাকার আনোয়ার হোসেন সহ ৬ জন মিলে মুল ঘটনার দুই মাস পরে ২৫ জানুয়ারী রাত ১০টায় হামলা চালিয়ে টিপুকে হাত পা ভেঙ্গে পঙ্গু করে দেয়। ফুফু রাশিদা আরো জানান আমার ভাইয়ের ছেলে টিপু বাচবে না ওর দুটি পা, হাত, কিডনি ও লিবার অচল হয়ে গেছে, মাথায় প্রচন্ড আঘাত, সে এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে তাকে বাচাতে এবং আসামীদের গ্রেফতার করতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন। উজিরপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ জাফর আহম্মেদ জানান আসামীদের গ্রেফতারের জোড় চেষ্টা চলছে।


© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত © ২০২০ বাঙলার জাগরণ
কারিগরি সহযোগিতায়: